হামদর্দের এমডির দুর্নীতির ঘটনায় সাক্ষী ড. সামসকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১২:৫৪, আগস্ট ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০৮, আগস্ট ২৫, ২০১৯


ড. সুফী সাগর সামসহামদর্দ ল্যাবরেটরিজ (ওয়াকফ) বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হাকিম ইউছুফ হারুন ভুইয়ার দুর্নীতির ঘটনায় সাক্ষী হিসেবে ড. সুফি সাগর সামসকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রবিবার (২৫ আগস্ট) বেলা ১১-১২টা পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে।
২০ আগস্ট পাঠানো তলবি নোটিশে ড. সামসকে রবিবার বেলা ১১টায় সেগুন বাগিচায় দুদক প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছিল। এ বিষয়ে নোটিশ পাঠিয়েছিলেন দুদকের সহকারী পরিচালক সাইদুজ্জামান।
জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ড. সামস বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘হামদর্দ ল্যাবরেটরিজ দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটিকে বাঁচাতে দুদকে আবেদন করেছিলাম। দুর্নীতির তদন্ত চেয়েছিলাম। আমাকে তদন্তে সহযোগিতার জন্য ডাকা হয়েছিল। আমার কাছে থাকা নথিপত্র দুদকে উপস্থাপন করেছি।’
দুদকের ঊর্ধ্বতন সূত্র জানায়,  হাকিম ইউছুফ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে শত শত কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধান করছে দুদক। তার বিরুদ্ধে চারটি অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অভিযোগুলো হলো:

১. স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে নিজের সন্তানদের পরিচালক হিসেবে নিযোগ দেওয়া।
২. অনিয়মের মাধ্যমে নির্ধারিত বেতনের চেয়ে বেশি বেতন গ্রহণ।
৩. কাঁচামাল ও যন্ত্রপাতি আমদানির নামে বিপুল পরিমাণ টাকা আত্মসাৎ।
৪. জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন।

একই অভিযোগ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যদের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি হাকিম ইউছুফকে জিজ্ঞাসাবাদও করেছে। ১৯ জুন বেলা পৌনে ১১টা থেকে দুপুর পৌনে ১টা পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে।
প্রসঙ্গত, গত ১১ মে হামদর্দের অনিয়ম, দুর্নীতি এবং হাকিম ইউছুফ ও তার পরিবারের ভূমিকা নিয়ে ‘হাকিম ইউছুফের পারিবারিক দখলদারি, ডুবতে বসেছে হামদর্দ’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করে বাংলা ট্রিবিউন।

 

/ডিএস/এসটি/

লাইভ

টপ