অতিরিক্ত সেশন ফি নেওয়া বেসরকারি কলেজের তালিকা চেয়েছে সরকার

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:০৪, আগস্ট ২৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:০৭, আগস্ট ২৮, ২০১৯

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আদেশউচ্চ আদালতের নির্দেশের পর দেশের বেসরকারি কলেজে অতিরিক্ত সেশন ফি আদায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তালিকা চেয়েছে সরকার। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) আঞ্চলিক উপ-পরিচালকদের আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে এই তালিকা পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৬ আগস্ট) মাউশির সহকারী পরিচালক (কলেজ-৩) ফারহানা আক্তার স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়, এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানগুলোর দৌরাত্ম সীমা অতিক্রম করেছে। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত সেশন ফি ছাড়াও বাজার থেকে চার-পাঁচগুণ বেশি টাকায় বই, খাতাসহ শিক্ষা উপকরণ কিনতে বাধ্য করা হয় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের। এমনকি স্কুল ড্রেসও প্রতিষ্ঠান থেকে নিতে হয়।
মাউশির আদেশে বলা হয়, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নামে এমন ডাকাতি কারবার বন্ধ করতে বগুড়ার আব্দুল মান্নান আকন্দ নামে এক ব্যক্তি জনস্বার্থে হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন করেন। ওই রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২ জুলাই হাইকোর্টের বিচারপতি জেবিএম হাসান এবং বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের বেঞ্চ মাত্রাতিরিক্ত সেশন ফি নেওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে সরকারি নীতিমালার বাইরে নেওয়া বাড়তি টাকা অভিভাবকদের কাছে ফিরিয়ে দিতে হবে বলে আদেশ দেন।’
মন্ত্রী ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক সারাদেশের যেসব বেসরকারি কলেজ অতিরিক্ত ফি আদায় করছে তাদের তালিকা আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয় এ আদেশে।

 

/এসএমএ/ওআর/

লাইভ

টপ