আবরার হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১৯ ছাত্রকে বুয়েট থেকে সাময়িক বহিষ্কার

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৩৮, অক্টোবর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:০০, অক্টোবর ১২, ২০১৯

বুয়েট অডিটোরিয়ামে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ভিসির আলোচনা শুরুবাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ১৯ আসামিকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন উপাচার্য (ভিসি) প্রফেসর ড. সাইফুল ইসলাম। শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৫টায় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠকে এ ঘোষণা দেন তিনি। বুয়েটের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এর আগে ৫টা ২২ মিনিটে উপাচার্য অডিটোরিয়ামে প্রবেশ করেন। শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও বিভিন্ন অনুষদের ডিনরা বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন।

শিক্ষকদের আগে বৈঠকে অংশ নিতে শিক্ষার্থীরা প্রবেশপত্র দেখিয়ে সারিবদ্ধভাবে অডিটোরিয়ামে প্রবেশ করেন। অডিটোরিয়ামে প্রবেশের জন্য সাংবাদিকদের প্রেস কার্ড দেন শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে রবিবার (৬ অক্টোবর) রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দোতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সোমবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে আবরারের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি বলেন, ‘ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।’ নিহত আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।
আবরার হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিসহ ১০ দফা দাবিতে আন্দোলনে উত্তাল রয়েছে বুয়েট ক্যাম্পাস।

/আরজে/আইএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ