বিএনপির এমপি হারুন কারাগারে, শুল্ক ফাঁকির মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৩৮, অক্টোবর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫০, অক্টোবর ২১, ২০১৯


হারুন উর রশীদশুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানি সুবিধা নিয়ে পরবর্তীতে তা বিক্রি করে শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে দুদকের মামলায় বর্তমান বিএনপি সংসদ সদস্য হারুন উর রশীদকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ৫০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। সোমবার (২১ অক্টোবর) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম এ রায় ঘোষণা করেন।
দুদকের আদালত পরিদর্শক আশিকুজ্জামান জানান, মামলার রায়ে সাজা পরোয়ানা জারি করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।
ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের হাজতখানার পরিদর্শক মাইনুল ইসলাম জানান, রায় ঘোষণা শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

হারুন উর রশিদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য। 

মামলার অপর দুই আসামি এনায়েতুর রহমান বাপ্পীকে (চ্যানেল ৯ এর এমডি) দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ইশতিয়াক সাদেককে ৩ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৪০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। উভয় আসামি পলাতক রয়েছেন। বিচারক তাদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করেন।

মামল‌ার অভিযোগ থে‌কে জানা যায়, হারুন জোট সরকা‌রের সময় ২০০৫ সা‌লে ব্রি‌টেন থে‌কে এক‌টি হামার ব্র্যা‌ন্ডের গা‌ড়ি শুল্কমুক্তভা‌বে ক্রয় ক‌রেন। গ‌া‌ড়ি‌টি তি‌নি পরে আরেক আসা‌মি ইশ‌তিয়াক সা‌দে‌কের কা‌ছে ৯৮ লাখ টাকায় বি‌ক্রি ক‌রে দেন। এরপর সা‌দেক গা‌ড়ি‌টি চ্যা‌নেল নাইনের এম‌ডি এনায়েতুর রহমান বাপ্পীর কা‌ছে বি‌ক্রি ক‌রে। ‌নিয়ম অনুযায়ী শুল্কমুক্ত গা‌ড়ি তিন বছ‌রের ম‌ধ্যে বি‌ক্রি কর‌লে শুল্ক দি‌তে হয় কিন্তু আসা‌মি হারুন শুল্ক না দি‌য়ে বিশ্বাস ভঙ্গ ক‌রেন। এই অভি‌যো‌গে ২০০৭ সা‌লের ৭ মার্চ উপপ‌রিদর্শক ইউনুছ আলী তেজগাঁও থানায় মামলা দা‌য়ের ক‌রেন। এরপর একই বছর ১৮ জুলাই তা‌দের বিরু‌দ্ধে অভিযোগপত্র দা‌খিল করেন। মামলায় মোট ১৭ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন বিচারক।

/টিএইচ/ওআর/টিএন/এমএমজে/

লাইভ

টপ