behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

মৌলভীবাজারে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ব্যালট পেপার ছিনতাই

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি১৬:৪০, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৫

মৌলভীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে উত্তেজনা,ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং একটি কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাই ঘটনার মধ্য দিয়ে ভোট গ্রহণ চলছে। ভোটের সংবাদ সংগ্রহ করতে যাওয়া অন্তত তিনজন সাংবাদিক প্রার্থীর সমর্থকদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। বেলা ১টা পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে ৫টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত হয়ে যায়।
জানা গেছে, বেলা পৌনে এগারোটায় জেলা শহরের বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একজন মেয়র প্রাথীর কিছু সমর্থক জোরপূর্বক কেন্দ্রে ঢুকে বিশৃঙ্খলা শুরু করলে একঘণ্টার মতো ভোট গ্রহণ বন্ধ থাকে। পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের হন্তক্ষেপে ভোট গ্রহণ পুনরায় শুরু হয়। বেলা সাড়ে বারোটায় ওই কেন্দ্রে একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর লোকজন কয়েক দফা উচ্ছৃঙ্খলতা শুরু করে। বিজিবি সেখান থেকে একজনকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।  এ সময় এসএ টিভির সাংবাদিক পান্না দত্তের ক্যামেরা ভাঙচুর করা হয় এবং কালের কন্ঠের সাংবাদিক আবদুল হামিদ মাহবুব ও বাংলা নিউজের মাহবুবুর রহমান রাহেলকে লাঞ্ছিত করা হয়।
কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা নিরোদ চন্দ্র সরকার বলেন, এখন ভোট শান্তিপূর্ণভাবে চলছে।
বেলা এগারোটার দিকে শহরের শাহ মোস্তফা কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকরা অতর্কিতে কেন্দ্রে ঢুকে কিছু ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেয়। এ সময় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তার সঙ্গে তাদের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এতে প্রায় ১০০টি ব্যালট পেপার ছিনতাইকারীরা ফেলে যায়। একেন্দ্রে একঘণ্টা ভোট বন্ধ থাকার পর পুনরায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়।
এছাড়া কাশীনাথ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র কিছুটা উত্তপ্ত হলেও ভোটগ্রহণ চলছিল।
বিএনপির মেয়র প্রার্থী মো অলিউর রহমান বলেন, সরকারি দলের মেয়র প্রার্থীর লোকজন বিভিন্ন কেন্দ্রে জোর করে ব্যালটে সিল মেরে জয় ছিনিয়ে নেওয়ার তৎপরতা চালাচ্ছে। রিটার্নিং অফিসারসহ নির্বাচনি কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ দিয়েও কোনও ফল পাওয়া যাচ্ছে না।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ফজলুর রহমান বিএনপি প্রার্থীর অভিযোগ নাকচ করে বলেন, কয়েকটি কেন্দ্রে কাউন্সিলার প্রার্থীর কর্মীরা সমস্যা সৃষ্টি করছে। এগুলো দমন করা হচ্ছে।

জেলার কুলাউড়া,বড়লেখা ও কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে সর্বশেষ বেলা দেড়টা পর্যন্ত প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে কিছু কিছু কেন্দ্রের বাইরে উত্তেজনা, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটলেও কোনও কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বন্ধ করার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি।

/এএ/

Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ