behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

নাইকো মামলায় বুধবার আদালতে যাবেন না খালেদা

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৭:৩০, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৬

খালেদা জিয়ানাইকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানিতে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) আদালতে হাজির হবেন না এ মামলার অন্যতম আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।
খালেদা জিয়ার পক্ষের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া এই তথ্য জানান। শারীরিক অসুস্থতার কারণে খালেদা আদালতে যাবেন না বলে জানান তার আইনজীবী।
গত বছর ২৮ ডিসেম্বর খালেদা জিয়ার সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে নাইকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি পিছিয়ে ১৭ ফেব্রুয়ারি বুধবার তারিখ ধার্য করেছিলেন আদালত।
ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৯ এর বিচারক এম আমিনুল ইসলাম ওইদিন এ আদেশ দেন। এর আগে নাইকো দুর্নীতি মামলায় গতবছর ৩০ নভেম্বর নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পান খালেদা জিয়া।
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম বিচারিক আদালতে চলবে বলে গত বছর ১৮ জুন রায় দেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ মামলাটি বাতিল চেয়ে খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে দেন। এ সংক্রান্ত ইতোপূর্বে জারি করা রুল নিষ্পত্তি করে রায় দেন আদালত। রায় প্রকাশের দুই মাসের মধ্যে বিচারিক আদালতে খালেদা জিয়াকে আত্মসমর্পণেরও নির্দেশ দেওয়া হয়। সে অনুযায়ী তিনি আত্মসমর্পণ করেন।

কানাডার কোম্পানি নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের আর্থিক ক্ষতি ও দুর্নীতির অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলাটি দায়ের করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। ২০০৮ সালের ৫ মে এ মামলায় খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। অভিযোগপত্রে আসামিদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।

এ মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করেন খালেদা জিয়া। শুনানি শেষে ২০০৮ সালের ১৫ জুলাই নাইকো দুর্নীতির মামলার কার্যক্রম দুই মাসের জন্য স্থগিত ও রুল জারি করে আদালত। পরে ওই স্থগিতাদেশের মেয়াদ কয়েক দফা বাড়ানো হয়।

এদিকে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে খালেদা জিয়ার করা রিট আবেদন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় মঙ্গলবার প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। বিচারিক আদালতের এ রায়ের কপি পাওয়ার দুই মাসের মধ্যে খালেদা জিয়াকে আত্মসমর্পণ করতে হবে বলে সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা জানান। সর্বশেষে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ২০০৮ সালের ৫ মে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয় দুদক।

/এফএস/টিএন/ 

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ