সিকৃবি রেজিস্ট্রারের অব্যাহতি চেয়ে ৬৭ শিক্ষকের পদত্যাগ

Send
সিলেট প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:৫৬, মার্চ ১৭, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:০৮, মার্চ ১৭, ২০১৬

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) রেজিস্ট্রারের অব্যাহতি চেয়ে প্রশাসনিক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন ৬৭ জন শিক্ষক। প্রক্টরের সঙ্গে অশালীন আচরণের জের ধরে বুধবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. গোলাম শাহী আলমের কাছে তারা এই পদত্যাগপত্র জমা দেন।সিকৃবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় কুণ্ডু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,আমরা রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েবকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণের দাবি জানিয়েছি। তাকে অপসারণ না করা পর্যন্ত আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডে অংশ নেবো না।
সিকৃবির শিক্ষকদের অভিযোগ,বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েব মঙ্গলবার রাতে প্রক্টর আব্দুল বাসেতকে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করেন। এ নিয়ে ক্যাম্পাস উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। বুধবার রাতে সিকৃবি শিক্ষক সমিতির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রশাসনিক পদে দায়িত্বপ্রাপ্ত ৭৫ জন শিক্ষকের মধ্যে ৬৭ জন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। রাতেই ভিসির কাছে তাদের পদত্যাগপত্র পৌঁছে দেওয়া হয়।


শিক্ষক সমিতির সেক্রেটারি বলেন,রবিবার সমিতির জরুরি সভা আহ্বান করা হয়েছে। ওই সভায় পরবর্তী কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে তিনি শুনেছেন। তবে,এ সংক্রান্ত কোনও চিঠি তিনি পাননি।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. গোলাম শাহী আলমের সঙ্গে সেলফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সূত্র জানায়, সিকৃবিতে ২৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। এ নিয়োগ নিয়েই মূলত রেজিস্ট্রার ও প্রক্টরের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে০।

/জেবি/এমএসএম

লাইভ

টপ