ফেসবুকে মতামত জরিপ৬৫ শতাংশের মতে ক্রিকেট বিশ্বায়নে প্রধান বাধা ভারত!

Send
মিজানুর রহমান
প্রকাশিত : ১৫:৩৭, মার্চ ২১, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৫, মার্চ ২১, ২০১৬

ক্রিকেটের বিশ্বায়নে কাকে বাধা মনে করেন?অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগে জাতীয় ক্রিকেট দলের তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদ ও স্পিনার আরাফাত সানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আইসিসি। এ নিয়ে ক্ষোভে উত্তাল বাংলাদেশ। জাতীয় দলের কোচ, অধিনায়ক, খেলোয়াড়, ক্রীড়াবোদ্ধা থেকে শুরু করে দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের মুখে এখন শুধু আইসিসির এই সিদ্ধান্তের যৌক্তিতার প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে। যেখানে অধিকাংশই মনে করছেন আইসিসির এমন বিতর্কিত সিদ্ধান্ত ক্রিকেট উন্নয়নে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। একই সঙ্গে এই দায় যাচ্ছে ভারতে কাঁধেই। বাংলা ট্রিবিউন পরিচালিত ফেসবুকের মাধ্যমে একটি মতামত জরিপে দেখা গেছে- অর্ধেকেরও বেশি মানুষ মনে করছেন, ক্রিকেট বিশ্বায়নে প্রধান বাধা ভারত। 
সম্প্রতি ১৯ এবং ২০ মার্চ বাংলা ট্রিবিউন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ‘পোলস ফর পেইজেস’ অ্যাপের মাধ্যমে ১১৯ জন ক্রিকেটপ্রেমীর কাছে এ সংক্রান্ত ৬টি প্রশ্নের উত্তর জানতে চায়।  ৪০ জন মতামত দেন। সবার কাছেই প্রথমে জানতে চাওয়া হয়, তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশন কখনও তাদের কাছে সন্দেহজনক মনে হয়েছে কি না? জবাবে শতভাগই বলেছেন, তাদের মনে কখনওই তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে কোনও সন্দেহ জাগেনি।

একই প্রশ্ন আরাফাত সানির বিষয়ে ৪২.৫০ শতাংশ জানিয়েছেন, মাঝে মাঝে তার বোলিং অ্যাকশন সন্দেহজনক মনে হয়েছে। তবে সানির অ্যাকশনে কোনও সন্দেহের অবকাশ নেই বলে মত দিয়েছেন ৫৭.৫০ শতাংশ।

বোলিং অ্যাকশন দেখে কখনও কি সন্দেহজনক মনে হয়েছে?

তাসকিন ও সানির বোলিং অ্যাকশনে আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় একটি প্রশ্নই বার বার ঘুরেফিরে এসেছে যে- এতদিন খেলার পরও হঠাৎ করে কেন এই দুজনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ হলো আইসিসির? ৮৭.৫০ শতাংশ মতামত দানকারী মনে করেন, বোলারের অ্যাকশন নিয়ে আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণের পূর্বেই পরীক্ষা হয়ে যাওয়া উচিত।
২০১৫ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময় থেকে আইসিসির ভূমিকা নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। সেটি আরও তীব্র হয়েছে এই দুই বোলারকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায়। ৯২.৫০ শতাংশই মনে করেন এই নিষেধাজ্ঞা একটি ষড়যন্ত্র।

আইসিসির এমন একপেশে সিদ্ধান্ত অব্যাহত থাকলে তা ক্রিকেটের বিশ্বায়নের জন্য একটি বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে বলে তারা মনে করেন। ক্রিকেটের বিশ্বায়নের পথে বাধার প্রশ্নে মতামত দানকারী ক্রিকেটপ্রেমীরা আঙুল তুলেছেন ভারতের দিকেই। এই প্রক্রিয়ায় ভারতকে প্রধান অন্তরায় বলে মনে করেন ৬৫ শতাংশ। অন্যদিকে প্রতিষ্ঠান হিসেবে আইসিসিকে দায়ী করছেন ৩০ শতাংশ।

তবে আইসিসির এই বিতর্কিত সিদ্ধান্তের জবাব মাঠেই দিতে মাশরাফিদের পরামর্শ দিয়েছেন বেশিরভাগ ক্রিকেটপ্রেমী। এই মুহূর্তে মাশরাফিদের প্রতি ক্রিকেটপ্রেমীদের কয়েকটি পরামর্শ নিম্নে তুলে ধরা হলো-

  • নিজেদের খেলাটা খেলে যেতে হবে। মাঠের বাইরের ষড়যন্ত্রের জবাব মাঠেই দেব আমরা।
  • মাথা ঠাণ্ডা রেখে, আমাদের যা আছে তাই নিয়ে জিতে আসা।
  • চিন্তার কিছু নেই টাইগার্স, আমরা তোমাদের পাশেই আছি। এগিয়ে যাও...
  • শান্ত হয়ে নিজের খেলাটি খেলে যাওয়া।
  • তাসকিন ও সানির পাশে সব রিসোর্স নিয়ে দাঁড়ানো।
  • মাশরাফি আমরা তোমাদের পাশেই আছি। টিম ম্যানেজম্যান্ট, আপনাদের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।
  • খেলে আসো শেষ পর্যন্ত, এখনও সুযোগ শেষ হয়নি।
  • মনোযোগ হারিও না। তাসকিন-সানিকে ছাড়া এখনও আমরাদের জেতার সম্ভাবনা রয়েছে।
  • শান্ত হও, তাসকিন ও সানি নিজেদের অ্যাকশন শুধরে আবার ফেরত আসবে এবং পারফর্ম করবে।

 

জরিপ পরিচালনা: বাংলা ট্রিবিউন

জরিপের ধরন: চকিত জরিপ (সাডেন সার্ভে)

জরিপ পরিচালনার সময়কাল: ১৯ এবং ২০ মার্চ

নমুনা (sample) সংগ্রহের প্রক্রিয়া:

১. প্রোফাইলে শেয়ারের মাধ্যমে নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

২. ‘পোলস ফর পেইজেস’ অ্যাপের মাধ্যমে জরিপের ফর্ম গঠন করা হয়

৩. শুধু ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ওপর এই জরিপ পরিচালনা করা হয়।

৪. ১১৯ জনকে জরিপ ফর্মটি পাঠানো হয়, যার মধ্যে মতামত দেন ৪০ জন (৩৩.৬ শতাংশ রেস্পন্স রেট)

লাইভ

টপ