জবি শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

Send
জবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:২৮, এপ্রিল ০৬, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩১, এপ্রিল ০৭, ২০১৬


নাজিমুদ্দিন সামাদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক শিক্ষার্থীকে দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর পর মাথায় গুলি করে হত্যা করেছে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম নাজিমউদ্দিন (২৮)। বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সূত্রাপুরের একরামপুর মোড়ে তাকে হত্যা করা হয়।
নিহত নাজিমউদ্দিন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এলএলএম- এর ছাত্র ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি সিলেটের বিয়ানীবাজার এলাকায়।  ঘটনাস্থলে প্রচুর রক্ত ও মাথার মগজ পড়ে রয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। নিহত নাজিমুদ্দিন সামাদ গণজাগরণ মঞ্চের একজন সক্রিয় কর্মী ছিলেন।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সুত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তপন কুমার সাহা বলেন, মোটর সাইকেলে ৩-৪ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি এসে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এবং মাথায় গুলি করে হত্যা শেষে দ্রুত পালিয়ে যায়। মিডফোর্ড হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের লাশের ময়নাতদন্তের প্রস্তুতি চলছে।
তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থল থেকে পিস্তলের গুলির এক রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও কাউকে সনাক্ত কিংবা আটক করা যায়নি। তবে আমরা অভিযানে আছি, গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নাজিমুদ্দিন সামাদ

স্থানীয়রা জানান, গুলির সঙ্গে সঙ্গে নিহতের মাথার খুলির অংশটি মাটিতে ছিটকে পড়ে এবং নিথর দেহটি পাশেই লুটিয়ে পড়তে দেখা যায়।জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ডক্টর নূর মোহাম্মদ নাজিমের পরিচয় নিশ্চিত করে বলেন, নাজিম বিশ্ববিদ্যালয়ের সান্ধ্যকালীন কোর্সের এলএলএম- এর ছাত্র।

/আরএআর/ এপিএইচ/ 

লাইভ

টপ