ইসি কমিশনার মাহবুবের বক্তব্য আদালত অবমাননার শামিল: জামায়াত

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৬:৩৮, নভেম্বর ১৫, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪৮, নভেম্বর ১৫, ২০১৭


নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের সমালোচনা জামায়াতে ইসলামীর
নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার গত ১৪ নভেম্বর নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ‘নির্বাচনে জামায়াতের চিহ্নিত নেতাদের গ্রহণ করবে না নির্বাচন কমিশন’ শীর্ষক বক্তব্যকে আদালত অবমাননার শামিল হিসেবে দাবি করেছে জামায়াত।
বুধবার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে দলটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এটিএম মাসুম এই বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান।
জামায়াত নেতা বলেন, মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য সম্পূর্ণ অন্যায়, অনভিপ্রেত, অনাকাঙ্ক্ষিত ও হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তার এ অসাংবিধানিক ও বেআইনি বক্তব্যের দ্বারা আবারও প্রমাণিত হল যে বর্তমান নির্বাচন কমিশন পক্ষপাতদুষ্ট ও সরকারের আজ্ঞাবহ।
এটিএম মাসুম বলেন,  বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী এ দেশের একটি জনপ্রিয়, আইনানুগ ও বৈধ রাজনৈতিক দল। অতীতের প্রায় সব জাতীয় সংসদেই জামায়াতের প্রতিনিধিত্ব ছিল। বর্তমানে উপজেলা, ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌরসভা, সিটি করপোরেশনেও জামায়াতের বহু সংখ্যক নির্বাচিত প্রতিনিধি রয়েছেন।
বিবৃতিতে তিনি বলেন , ‘জামায়াতের নিবন্ধন ফিরে পাওয়ার জন্য দায়ের করা মামলাটি দেশের উচ্চ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। সুতরাং জামায়াতে ইসলামীর নির্বাচনে অংশগ্রহণ সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনার জনাব মাহবুব তালুকদারের এ ধরনের বেআইনি ও বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দেওয়ার কোনও এখতিয়ার নেই।’
এটিএম মাসুম বিবৃতিতে দাবি করেন,  ‘নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের এ বক্তব্য আদালত অবমাননার শামিল। নির্বাচন কমিশনারের এ বক্তব্য নির্বাচন কমিশনের ভূমিকাকেই প্রশ্নবিদ্ধ করল। দেশের জনগণ আইন, আদালত ও সংবিধানের প্রতি তার সামান্যতম শ্রদ্ধাবোধ থাকলে তিনি এ ধরনের বেআইনি বক্তব্য দিতে পারতেন না।
জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল আহ্বান জানান, আইনের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে জামায়াতে ইসলামী সম্পর্কে বেআইনি বক্তব্য দেওয়া থেকে বিরত থাকার জন্য আমি নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”

/এসটিএস/টিএন/

লাইভ

টপ