খালেদা জিয়াকে ঈদ শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে যাবেন বিএনপি নেতারা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০২:০৪, জুন ১৪, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:২৪, জুন ১৪, ২০১৮

খালেদা জিয়াদলীয় প্রধান কারাগারে, আর তাই ঈদুল ফিতরের দিনে তাদের নেত্রীকে দেখতে ও শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে যাবেন বিএনপি নেতারা। মূলত পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডে কারাগারে বন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাতেই সেখানে হাজির হবেন সিনিয়র নেতারা। দলীয়ভাবে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে বিএনপির একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

দলীয় সূত্র বলছে, প্রতি বছর খালেদা জিয়া নিজেই ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠান করতেন। ঈদের দিন রাজনীতিবিদ, কূটনীতিক ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে তিনি ঈদের শুভেচ্ছা আদান-প্রদান করতেন। তিনি জেলে থাকায় এ বছর আর এই অনুষ্ঠান করা হচ্ছে না।

প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজার আদেশ পেয়ে জেলে আছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ প্রতিবেদককে সম্প্রতি বলেছেন, দলীয় চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতিতে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানটি হচ্ছে না।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন এরই মধ্যে দাবি করেছেন, ঈদের আগে খালেদা জিয়াকে যেন প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়।

এদিকে বিএনপি নেতারা আরও জানিয়েছেন, আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনে স্বাভাবিকভাবে ঈদের নামাজ আদায় করে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও তার ছোট সন্তান আরাফাত রহমান কোকোর মাজার জিয়ারত করবেন দলের নেতারা।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এখনও আমরা আশা করি আমাদের ম্যাডাম মুক্তি পাবেন। তাকে নিয়েই ঈদ করতে পারব। তবে আমাদের কপাল খারাপ থাকলে যতটুকু করা সম্ভব করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘ঈদের দিন নামাজ আদায় করে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত ও দোয়া করার পর আরাফাত রহমান কোকোর মাজার জিয়ারত করে জেলগেটে চেয়ারপারসনকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাতে যাবেন সিনিয়র নেতারা। সরাসরি দেখা করা বা না করার বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত না হলেও সিনিয়র নেতারা সবাই যাবেন জেলগেটে।’

জানা গেছে, ঈদের দিনে জেলগেটে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থায়ী কমিটি ও সিনিয়র নেতারা সেখানে উপস্থিত থাকবেন। শায়রুল কবির খান বলেন, ‘ঈদের খুশি ম্যাডামকে উৎসর্গ করতেই নেতারা জেলগেটে যাবেন।’

বিএনপির একটি সূত্র জানায়, ঈদের দিন দলের নেতারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি না পেলেও পরিবারের সদস্যরা সাক্ষাৎ করবেন। তাদের অনুমতি পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

/এসটিএস/এএইচ/চেক-এমওএফ/

লাইভ

টপ