বাজেট সাধারণ মানুষের জন্য শুভঙ্করের ফাঁকি: গাণি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:২৩, জুন ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩৩, জুন ১৪, ২০১৯

ফাইল ফটো

 

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটকে শুধু আমলাতান্ত্রিক অঙ্কের যোগ-বিয়োগ বলে অভিহিত করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া। তারা বলেন, ‘এই বাজেট সাধারণ মানুষের জন্য নয়। এতে সাধারণ মানুষের আশা-আকাঙ্খা বা তাদের প্রত্যাশার বিষয়টি গুরুত্ব পায়নি, বরং তা শুভঙ্করের ফাঁকি।’

বৃহস্পতিবার ঘোষিত বাজেটের প্রতিক্রিয়ায় শুক্রবার (১৪ জুন) তারা এসব কথা বলেছেন।

জেবেল রহমান গাণি বলেন, ‘শাসকগোষ্টির কারণে বাংলাদেশের বাজেট আজও গণমানুষের হতে পারেনি। বাজেটে অনেক কিছুই বলা হয়, কিন্তু বাস্তবায়ন হয় না। বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল রাষ্ট্র, যেখানে ১৭-১৮ কোটি মানুষ বসবাস করছে, সেখানে ৪-৫ লাখ কোটি টাকার বাজেট মোটেই বিশাল নয়। বাংলাদেশের অর্থনীতি, উন্নয়ন, বিনিয়োগ, কর্মসংস্থানসহ নানা ক্ষেত্রে ব্যয়ের সঙ্গতি ধরে কথা বললে বাজেটের আকার আরও বড় হলেও হতে পারতো।’

ন্যাপের দুই শীর্ষনেতা আরও বলেন, ‘সরকারের নীতিনির্ধারকরা বাজেট নিয়ে আমলা বা কিছু বুদ্ধিজীবী ও ব্যাবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করে থাকেন। যারা কেউ প্রান্তিক জনগণের বা একজন মুদি ব্যবসায়ীর প্রতিনিধিত্ব করেন না। এফবিসিসিআই হাজার হাজার কোটি টাকার বিষয় নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে। কিন্তু গ্রামের একজন সাধারণ মানুষের কাছে ১০০ টাকাই অনেক বড় কিছু। বাজেটে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ বা তাদের প্রত্যাশার বিষয়টি একেবারেই গুরুত্ব পায় না।’

ন্যাপ নেতারা বলেন, ‘বাজেট আলোচনায় অনেক কিছুই বলা হয়, কিন্তু বাস্তবায়নে সব সময় নানা সমস্যা রয়ে যায়।’

ন্যাপ চেয়ারম্যান ও মহাসচিব আরও বলেন, ‘ঘোষিত বাজেট সাধারণ মানুষের জন্য শুভঙ্করের ফাঁকি ছাড়া অন্য কিছুই নয়। সরকারের বাজেট প্রতিটি মানুষের জীবনে প্রভাব রাখে। কারও জীবনে ইতিবাচক আবার কারও জীবনে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। এ কারণে আমাদের মতো দেশে অনেক চিন্তা-ভাবনা করে বাজেট প্রণয়ন প্রয়োজন।’

তারা বলেন, ‘সরকারের ঘোষিত বাজেটে বড় বড় রাস্তা-ফ্লাইওভার নির্মাণের মতো বিষয় গুরুত্ব পেলেও, সেখান থেকে সাধারণ মানুষ কী সুবিধা পাচ্ছে তা গুরুত্ব পায়নি। প্রান্তিক মানুষের সঙ্গে যা সরাসরি জড়িত, সেখানে গুরুত্ব দেওয়া হয় নাই। সেখানের উন্নয়ন কাঠামো এখনও দুর্বলই রয়ে গেছে।’

 

/এসটিএস/এএইচ/

লাইভ

টপ