কতদূর এগোলো জামায়াতের নতুন সংগঠনের কাজ?

Send
সালমান তারেক শাকিল
প্রকাশিত : ২৩:০৩, জুন ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫০, জুন ১৬, ২০১৯

জামায়াতমূল দলকে দাওয়াত ও তাবলিগের কাজে সীমাবদ্ধ রেখে নতুন নামে ভিন্ন একটি রাজনৈতিক সংগঠন গড়ে তোলার প্রক্রিয়া গুছিয়ে এনেছে জামায়াতে ইসলামী। এই লক্ষ্যে দলটির সেক্রেটারি জেনালের ডা. শফিকুর রহমানের নেতৃত্বে গঠিত ৫ সদস্যের কমিটির কাছে ইতোমধ্যে সম্ভাব্য দলটির কয়েকটি নামও এসেছে।

জামায়াতের বিশেষ কমিটির প্রভাবশালী একাধিক সদস্য জানান, আত্মপ্রকাশের নিশ্চিত সময়সীমা এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। তবে, নতুন সংগঠনটি রাজনৈতিক উইং হিসেবে থাকবে। কমিটির সদস্য হামিদুর রহমান আযাদ জেলে থাকায়  কিছুটা বিলম্ব হয়। তিনি ঈদের আগে জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন। এছাড়া কমিটির আরেক সদস্য নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার দেশের বাইরে ছিলেন। তিনিও দেশে ফিরেছেন বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে। তবে, বিশেষ কমিটির আরেক সদস্য ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহের এখনও কারাগারে।

গত ১৪ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের বৈঠক থেকে জামায়াতের কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরার সদস্যদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রস্তাবনা পাঠানো হয় বিবেচনার জন্য। এরপর শুরা সদস্যদের অভিমতের ভিত্তিতেই নতুন নামে সংগঠন গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত হয় এবং ৫ সদস্যের একটি বিশেষ কমিটি গঠিত হয়। যদিও এই কমিটি গঠনের বিষয়টি গোপন রাখার অভিযোগ এনে ১৫ ফেব্রুয়ারি লন্ডনে অবস্থানরত ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক দলের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেলের পদ থেকে পদত্যাগ করেন। ১৬ ফেব্রুয়ারি শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ এনে দল থেকে বহিষ্কার করা হয় ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি মুজিবুর রহমান মনজুকে।

রবিবার (১৬ জুন) জামায়াতের নতুন সংগঠনের কাজে যুক্ত প্রভাবশালী একনেতা জানান, নতুন সংগঠনের কার্যক্রম এগিয়ে চলছে। এক্ষেত্রে বেশকিছু আনুষঙ্গিক কাজ আছে।  খুব বেশি সময় লাগবে না। সবকিছু খেয়াল করে, সুন্দর করে গুছিয়ে আনতে হচ্ছে।

নতুন নামের বিষয়ে এই প্রভাবশালী নেতা বলেন, ‘নামের প্রস্তাব এসেছে কয়েকটি। কোন নামটি নেব, তা আমরা এখনও বাছাই করিনি। আমাদের পরবর্তী মিটিংয়ে হয়তো নাম নিয়ে আলোচনা হবে। নতুন সংগঠনের বিষয়ে কাজ শেষ হলে আনুষ্ঠানিকভাবেই সংবাদ মাধ্যমে জানানো হবে।’

জামায়াতের নির্বাহী কমিটির একজন সদস্য জানান, জামায়াতের রাজনৈতিক উইংয়ের নতুন নাম, সংগঠনের কাঠামো, রাজনৈতিক গঠনতন্ত্র, দেশব্যাপী নেতাকর্মীরা কীভাবে যুক্ত হবেন—এসব নিয়ে বিস্তারিত কাজ আছে। ফলে, গুছিয়ে আনতে সময় লাগছে।

গত ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি জামায়াতের দায়িত্বশীলদের কাছে পাঠানো চিঠিতে নতুন সংগঠনের বিষয়ে যথাসময়ে জানানোর কথা বলা হলেও এখন পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্ত তৃণমূলকে জানায়নি দলটির শীর্ষ নেতৃত্ব। নতুন সংগঠন গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও ৫ সদস্য কমিটি বিশেষ কমিটি গঠনের পর ৫ মাস শেষ হয়েছে গত ১৪ জুন (শুক্রবার)।

সময় লাগার বিষয়ে সিলেট জামায়াতের আমির ও কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন, ‘নতুন কাজটি করার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সময়ের কথা বলা হয়েছে। আর বিষয়টি যেহেতু গুরুত্বপূর্ণ, দলের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা যুক্ত, এ বিষয়ে তারা আমাদের বিভিন্ন পর্যায়ের শুভানুধ্যায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করছেন। এ কারণে সময় লাগছে। এরপর দলের বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা হবে। খুব বেশি সময় লাগার কথা নয়।’   

জামায়াতের রাজনীতির ঘনিষ্ঠ পর্যবেক্ষক, সাবেক সচিব শাহ আবদুল হান্নান বলেন, ‘তাদের অগ্রগতি কতটা আমি জানি না। কিন্তু তাদের কাজটা শেষ করা দরকার। মূল জামায়াত তো ছোটখাটো দল না, সময় লাগছে হয়তো। কিন্তু নতুনটার মধ্যেই কল্যাণ। তারা নিশ্চয়ই করবে, আপনারা অপেক্ষা করুন।’

জানতে চাইলে বিশেষ কমিটির সদস্য ও জামায়াতের নায়েবে আমির অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, ‘আমি বেশ কিছুদিন দেশে ছিলাম না। এখনও আপডেট কিছু জানতে পারিনি। আশা করি, দ্রুত এ বিষয়ে জানতে পারবো।’

এ প্রসঙ্গে গত ১৮ মে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান বলেছেন, ‘আনুষঙ্গিক কাজ গোছানো হচ্ছে।’ কার্যক্রম অব্যাহত আছে বলেও তিনি জানান।

/এমএনএইচ/

লাইভ

টপ