প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেবেন ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা

Send
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৩:৫৮, জুন ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:১৪, জুন ১৮, ২০১৯

ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতারাদাবি আদায়ের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্মারকলিপি দেবেন ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা। মঙ্গলবার (১৮ জুন) বিকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে তাদের প্রতিনিধিরা দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের কাছে স্মারকলিপি জমা দেবেন।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা জানান তারা। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে বিতর্কিত নেতাদের বাদ দেওয়ার দাবিতে টানা ২৩ দিন অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন তারা। দাবি আদায় না হলে খুব শিগগিরই তারা নতুন কর্মসূচি দেবেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পদবঞ্চিতদের মুখপাত্র ও ছাত্রলীগের সাবেক কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন।

এতে বলা হয়, ‘আমরা নিরুপায়, অসহায়। তাই ছাত্রলীগের একমাত্র অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চাচ্ছি।’

তারা কয়েকটি দাবিও পেশ করেন। তাদের দাবির মধ্যে আছে, শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করা, শূন্য ১৯ পদের নাম প্রকাশ করতে হবে এবং বিতর্কিতদের পদও শূন্য ঘোষণা করতে হবে, পদবঞ্চিতদের যোগ্যতার ভিত্তিতে পদায়ন করতে হবে, মধুর ক্যান্টিন এবং টিএসসিতে হামলার ঘটনার বিচার করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জসীমউদ্‌দীন হলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহেদ খান বলেন, ‘ছাত্রলীগের মধ্যে বর্তমানে যে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে তা নতুন একটি সিন্ডিকেটের মাধ্যমে করা হয়েছে। আমাদের যৌক্তিক আন্দোলনের কারণে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক প্রথমে ১৬ জনের নাম ঘোষণা করেছেন। পরবর্তীতে ১৯টি পদও শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। এই ১৯ জনের নাম প্রকাশ না করে তারা কিন্তু কমিটির ৩০১ জনকে বিতর্কিত করছেন। আপনারা লক্ষ করলে বুঝতে পারবেন, ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের সদিচ্ছার অভাবে এ অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।’

ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তারা নরম বিছানায় ঘুমিয়ে ছাত্রলীগের পরীক্ষিত কর্মীদের ২৩ দিন বসিয়ে রেখেছেন। আর কত ধৈর্যের পরীক্ষা নিতে চায় তারা? আমরা আপাকে (প্রধানমন্ত্রী) বলতে চাই, আপনি লক্ষ করবেন আমরা আপনার সংগঠনকে বিতর্কমুক্ত করতে টানা ২৩ দিন এখানে অবস্থান করছি। এমনকি আমরা ঈদও এখানে করেছি। আপা, আপনার কাছে আকুল আবেদন জানাতে চাই, যদি আপনি কোনও বিপদে আপদে পড়েন তাহলে এই ২৩ দিন যারা অবস্থানে রয়েছে তারাই আপনার পাশে থাকবে। তারা এক একজন আপনার সৈনিক, আপনার জন্য তারা জীবন দিয়ে দেবে।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপ-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক আল মামুন, প্রচার সম্পাদক সাঈফ বাবু, ডাকসুর সদস্য তানভীর হাসান সৈকত প্রমুখ।

/এসটি/এমওএফ/

লাইভ

টপ