খালেদা জিয়ার মুক্তি ও স্বাস্থ্যের বিষয়ে আন্তর্জাতিক পদক্ষেপ নেওয়া হবে: মির্জা ফখরুল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:০১, আগস্ট ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪০, আগস্ট ১৭, ২০১৯

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর (ফাইল ছবি)

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও স্বাস্থ্যের বিষয়ে আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘তার মুক্তি ও স্বাস্থ্যের বিষয়ে বিশ্বের গণতান্ত্রিক দেশগুলোকে অবহিত করবো। তাকে যে অন্যায়ভাবে আটকে রেখেছে, সেই বিষয়টি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে আসার জন্য যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’  

শনিবার (১৭ আগস্ট) রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্কাইপের মাধ্যমে যুক্ত হন লন্ডনে অবস্থানরত দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘ঈদের আগে খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়টি এসেছিল হাইকোর্টে, কিন্তু সেখানে নেতিবাচক আদেশ হওয়ার পর থেকে আমাদের যে ধারণাটা আরও পাকাপোক্ত হয়েছে তা হলো- বিচার ব্যবস্থা স্বাভাবিক ও স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না। সেখানে সরকার হস্তক্ষেপ করছে। সেক্ষেত্রে আইনিভাবে তার মুক্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। ন্যায় বিচার পাবো কিনা তা নিশ্চিত হতে পারছি না।’

আগস্ট মাসে সরকার কোনও কর্মকাণ্ড করতে দেয় না অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন হিসেবে যে বিভাগীয় সমাবেশ শুরু করেছিলাম, সেটা আবার নিয়মিত করা হবে। যেহেতু সরকার আগস্ট মাসে আমাদের কর্মসূচি নিতে দেয় না এবং কর্মকাণ্ড করতে দেওয়া হয় না, সেই কারণে ১ সেপ্টেম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী থেকে কর্মসূচি চালু হবে।’

১ সেপ্টেম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় র‌্যালি ও পরের দিন আলোচনা সভা করা হবে বলেও জানান মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, ‘এরপর বাকি ৫ বিভাগে সমাবেশ করা হবে দ্রুততম সময়ে।’

ডেঙ্গু রোগীদের বিনা খরচে চিকিৎসা দেওয়ার দাবি জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আগামী সেপ্টেম্বর মাসে ডেঙ্গু আরও বাড়বে। কিন্তু সরকার এখনও ওষুধ আনতে পারেনি।’

সরকারের ব্যর্থতা ও উদাসীনতায় চামড়া শিল্প ধ্বংস হচ্ছে দাবি করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘সরকারের বিশেষ বিশেষ ব্যক্তিদের মদদে চামড়া শিল্পের সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে। তারা দুটি স্বার্থে এই সিন্ডিকেট করেছে। প্রথমত, নিজেদের লাভ; দ্বিতীয়ত, এই শিল্পকে ধ্বংস করতে।’

এর আগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক উপস্থিত ছিলেন ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ।

 

/এএইচআর/এএইচ/

লাইভ

টপ