বিএনপির ‘নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম’ ঘোষণা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩৬, আগস্ট ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৩৩, আগস্ট ২৩, ২০১৯

বিএনপিদেশের নারী ও শিশুদের অধিকার রক্ষায় ভূমিকা পালনের লক্ষ্য নিয়ে ‘নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম’ শিরোনামে একটি জাতীয় কমিটি গঠন করেছে বিএনপি। শুক্রবার (২৩ আগস্ট) রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ কমিটির ঘোষণা দেওয়া হয়। এ সময় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও সেলিমা রহমান উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল একটি রাজনৈতিক সংগঠন। সমাজ উন্নয়নের লক্ষ্য পূরণে গণভিত্তিক রাজনৈতিক দল অঙ্গীকারবদ্ধ। গণতান্ত্রিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ রাজনৈতিক দল সামাজিক অধপতনের অরাজক পরিস্থিতির সময় নির্বিকার বসে থাকতে পারে না। খুন-ধর্ষণের পৈশাচিক বিকৃতি আমাদের রাষ্ট্র ও সমাজকে গ্রাস করে ফেলেছে। সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে রাষ্ট্র ও সমাজের সর্বত্র ঘৃণা ছড়ানোর ফলে ক্ষমতার ঘনিষ্ঠ সমাজবিরোধীরা আশকারা পাচ্ছে। দেশব্যাপী ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি জনমনে গভীর উৎকণ্ঠার জন্ম দিয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, প্রিয় বাংলাদেশ, আজ পরিণত হয়েছে ধর্ষণের লীলাভূমিতে। বখাটে প্রেমিক, পাড়ার মাস্তান, কর্মকর্তা, বাস কন্ডাক্টর, শিক্ষক, মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ কিছু বিকৃত মানুষের লালসার শিকার নারী ও শিশুরা। ৯ মাস বয়স থেকে ৮০ বছরের বৃদ্ধা পর্যন্ত ধর্ষকের লোলুপ দৃষ্টি থেকে বাদ যাচ্ছে না। এমনকি রেহাই পাচ্ছেন না বাকপ্রতিবন্ধী বা ভবঘুরে পাগলও। রাস্তাঘাট, বাস বা ট্রেন, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, হাসপাতাল, এমনকি পুলিশ স্টেশন- কোথাও নারীরা নিরাপদ নয়।

লিখিত বক্তব্যে আরও জানানো হয়, বর্তমান ভয়াবহ অনাচার-দুরাচারের বিরুদ্ধে এটি আমাদের একটি সামাজিক আন্দোলন। এ কমিটি ৯টি লক্ষ্য-উদ্দেশ্য নির্ধারণ করেছে। এছাড়া, চারটি কর্মসূচিও দিয়েছে নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম। এসব কর্মসূচির মধ্যে— ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও করণীয় নির্ধারণ, বিক্ষোভ মিছিল, জনমত তৈরি, মহিলা দলের তাৎক্ষণিক কর্মসূচি প্রদান ও আইনজীবী ফোরামকে নিয়ে কাজ করা।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে প্রধান উপদেষ্টা করে নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের আহ্বায়ক করা হয়েছে সেলিমা রহমানকে। আর অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীকে সদস্য সচিব মনোনীত করা হয়েছে।

/এসটিএস/এপিএইচ/এমওএফ/

লাইভ

টপ