বঙ্গবন্ধুর নাম করে জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ ড. কামালের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৫৩, আগস্ট ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৫৪, আগস্ট ২৪, ২০১৯

আলোচনা সভায় ড. কামাল

বঙ্গবন্ধুর নাম নিয়ে জনগণের কাছ থেকে ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ করেছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেছেন, ‘যারা বঙ্গবন্ধুর নাম নিয়ে জনগণকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে রাখে, ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করে, তাদের নিয়ে বিতর্কের কোনও অবকাশ নেই।’

শনিবার (২৪ আগস্ট) জাতীয় প্রেস ক্লাবে গণফোরাম আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানানো, তাকে স্মরণ করা, তাকে জাতির পিতার ভূমিকায় রাখার অর্থই হলো তিনি যে দায়িত্ব দিয়ে গেছেন তা যেন আমরা মনে রাখি, পালন করি। তার দেওয়া সেই দায়িত্বকে পবিত্র মনে করে আমরা যেন কাজ করে যাই। যারা সত্যিকার অর্থেই জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি, তারা জনগণের স্বার্থ রক্ষা করছে না। তারা ব্যক্তিস্বার্থ গোছাতে কাজ করছে। এটা দেখে মেনে নেওয়া যায় না। বঙ্গবন্ধু মেনে নেননি বলে তাকে জীবন দিতে হয়েছে। জনগণের স্বার্থ নিয়ে কোনোরকম আপস করেননি বলেই তাকে জীবন দিতে হলো।’

ড. কামাল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন, সেটা ধরে রেখে আমরা সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়তে পারি এবং গড়বো ইনশাল্লাহ। আজকের দিনে সবচেয়ে বড় অপরাধ হলো, বঙ্গবন্ধু যে কাজটা করতে বলেছেন উল্টোটা করে তার নাম নেওয়া। এই দেশে স্বৈরশাসন থাকবে, এটা তিনি কোনোদিনই ভাবতে পারেননি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি বঙ্গবন্ধুকে বলেছিলাম, ইয়াহিয়া খানই আপনাকে সার্টিফিকেট দিয়েছেন যে আপনি অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন। বাঙালিকে কখনও কোনোদিন কেউ ঐক্যবদ্ধ করতে পারেনি। এই অসম্ভবকে সম্ভব করে আপনি তাদের ঐক্যবদ্ধ করেছেন। ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতা দিয়েছেন আমাদের।’

আলোচনা সভায় গণফোরাম নির্বাহী সভাপতি আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

/এইচএন/এসটি/এমএমজে/

লাইভ

টপ