‘শেখ হাসিনাকে সরিয়ে তারেককে ক্ষমতায় বসাতে ঐক্যফ্রন্ট করিনি’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:৪৯, আগস্ট ২৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫২, আগস্ট ২৬, ২০১৯





ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হলেও একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে এটির লাগাম বিএনপির হাতে চলে গিয়েছিল বলে দাবি করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে সরিয়ে তারেক রহমানকে ক্ষমতায় বসানোর জন্য আমি রাজনীতি করি না। এজন্য ঐক্যফ্রন্ট থেকে আমার দলকে প্রত্যাহার করে নিয়েছি।’
সোমবার (২৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীতে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে এ সভার আয়োজন করে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ।
কাদের সিদ্দিকী বলেন, নিশ্চয়ই খালেদা জিয়া এ দেশের অন্যতম জাতীয় নেতা। কিন্তু তারেক রহমান নেতা নয় বলে দাবি করেন তিনি।
তিনি বলেন, ‘গত একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সবকিছুতে তারেক রহমান নেতৃত্ব দিচ্ছিলো। যেহেতু ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্ব কামাল হোসেনের হাতে ছিল না, তাই জোট থেকে আমরা নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছি।’ তবে নিজেকে কামাল হোসেনের ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত করতে পারেন না বলে মন্তব্য করেন কাদের সিদ্দিকী।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই বিএনপিকে বাঁচিয়ে রেখেছেন মন্তব্য করে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি আরও বলেন, “তিনি (শেখ হাসিনা) সারা দিন ‘বিএনপি’ বলে চিৎকার করে আওয়ামী লীগের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী করে রেখেছেন। এটা তিনি নিজের স্বার্থে করে রেখেছেন।’ এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘বিএনপি না থাকলে শেখ হাসিনা থাকবেন না। তার রাজনীতিও থাকবে না।’

শেখ হাসিনা সারা দিন ‘বিএনপি’ বলে চিৎকার না করলে আজকে দলটির যে অবস্থা তার চার ভাগের একভাগ হয়ে যেতো বলেও মন্তব্য করেন কাদের সিদ্দিকী।
আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।

/এএইচআর/এইচআই/এমওএফ/

লাইভ

টপ