বাংলাদেশকে ব্যর্থ করতে বিএনপি-জামায়াত তৎপর: হানিফ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৩০, আগস্ট ২৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৮, আগস্ট ২৯, ২০১৯





মাহবুবউল আলম হানিফ

বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে বিএনপি-জামায়াতের একটি চক্র এখনও তৎপর বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।
বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) রাজধানীর শাহবাগে পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।
আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটি এ সভার আয়োজন করে।
মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘এ দেশ যখন উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে যায় তখন পদে পদে বাধাগ্রস্ত করে তারা। এর অংশ হিসেবেই রোহিঙ্গা ইস্যুতে উসকানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছে দলটি।’
তিনি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উদ্দেশে বলেন, ‘দেশকে যদি ভালোবাসেন, আপনাদের উসকানিমূলক কর্মকাণ্ড ও কথাবার্তা বন্ধ করুন। তাহলে দেখবেন সব সমস্যার সমাধান দ্রুত হবে।’
আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো। রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানসহ সব সমস্যার সমাধান হবে। দয়া করে আপনারা উসকানি বন্ধ করুন।’
বিএনপির মুখে জাতি ঐক্যের কথা শুনতে চায় না দাবি করে হানিফ বলেন, ‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে মির্জা ফখরুলরা বৈঠক করেছেন, সেই বৈঠক শেষে তিনি বলেছেন, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজন। খুবই ভালো কথা বলেছেন। রোহিঙ্গা ইস্যু জাতীয় সমস্যা, এতে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু আপনারা জাতির মধ্যে যে বিভেদ সৃষ্টি করেছেন, আপনার নেতা জিয়াউর রহমান এ দেশে রাজাকার-আলবদর-আলশামসদের রাজনীতি করার সুযোগ দিয়ে জাতির মধ্যে একটা সুস্পষ্ট বিভেদ তৈরি করে দিয়েছেন।’
আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘এখন বাংলাদেশের সমাজ দুই ভাগে বিভক্ত। একদিকে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি। অন্যদিকে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি। তাই আপনাদের মুখে জাতি ঐক্যের কথা শুনতে চায় না।’
জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচার দাবি করে হানিফ বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের মূল চক্রান্তকারী বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান। তার বিচার না হওয়া পর্যন্ত, তার মুখোশ উন্মোচিত না হওয়া পর্যন্ত জাতির বিভক্তি দূর হবে বলে আমরা বিশ্বাস করি না।’
টিআইবির দেওয়া ‘জাতীয় সংসদ ব্যর্থ’ শীর্ষক রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেন হানিফ। সংসদ সফল বলেও দাবি করেন তিনি।
বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির সভাপতি খন্দকার বজলুল হকের সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, কবি নির্মলেন্দু গুণ, সাবেক বিচারপতি সামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন।

/এমএইচবি/এইচআই/এমওএফ/

লাইভ

টপ