কাউন্সিলে বাধা দিতেই খালেদার বিরুদ্ধে মামলা: নোমান

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৫:২৯, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০১৬

আবদুল্লাহ আল নোমানকাউন্সিলের মাধ্যমে বিএনপি যাতে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী হতে না পারে সেজন্য এই প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করতেই সরকার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান।
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা দায়েরের বিরুদ্ধে বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে ভাসানী ভবনে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এই অভিযোগ করেন। ঢাকা মহানগর কৃষক দল এই সভার আয়োজন করে।
নোমান অভিযোগ করেন, ‘বিএনপির কাউন্সিল ঘিরে আরেকটি চক্রান্ত শুরু হয়েছে। এর মাধ্যমে তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত দলকে শক্তিশালী করার প্রক্রিয়া হচ্ছে। কিন্তু সরকার চায় বিএনপির কাউন্সিল যাতে সফল না হয় এবং সাংগঠকিভাবে দলটি শক্তিশালী না হয়। সেজন্য বিএনপি নেত্রীকে হয়রানি করতে এবং মানসিকভাবে ব্যস্ত রাখতে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা দেওয়া হয়েছে। যাতে কাউন্সিল সুষ্ঠুভাবে করা সম্ভব না হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপির কাউন্সিল যথাসময়েই হবে এবং সেই কাইন্সিলের মাধ্যমে নতুন-পুরাতন মিলিত একটি কমিটি হবে। প্রয়োজনে গঠনতন্ত্র সংশোধন হবে। এর মাধমে নতুন নেতৃত্ব গড়ে উঠবে। সেই নেতৃত্ব অগ্রবাহিনী হিসেবে আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে এই সরকারের পরাজয়কে তরান্বিত করবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলাকে ‘রাজনৈতিক এবং মিথ্যা’ বলে অভিহিত করে নোমান বলেন, ‘এই ষড়যন্ত্রমূলক মামলা টিকবে না। শেষ পর্যন্ত এটি মিথ্যা প্রমানিত হবে।’

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক অ্যাডভোটেক নাসির হায়দারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, কৃষক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তকদির হোসেন জসিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

/এসটিএস/এফএস/

লাইভ

টপ