তিন ফুটবল পরাশক্তির রোল বল লড়াই

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৫:৪৯, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭

argeentinaফুটবলের তিন চির প্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে ও ইংল্যান্ড এবার ঢাকায় মুখোমুখি হচ্ছে রোল বলের প্রতিদ্বন্দ্বিতায়। এর আগে শুক্রবার সকালে পল্টন ময়দানের নব নির্মিত শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে ৪র্থ বিশ্বকাপ রোল বলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নেচে গেয়ে চারপাশ আলোকিত করে রাখে এই তিন ক্রীড়াপ্রেমী দেশের খেলোয়াড়রা।

ল্যাটিন আমেরিকার ফুটবল পরাশক্তি আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের সমর্থকরা ফুটবল ম্যাচকে ঘিরে তাদের উদযাপনের জন্য বিখ্যাত। তারই ছায়া যেন পড়লো রোল বল বিশ্বকাপেও! পাশাপাশি বসা তিন দেশের খেরোয়াড়রা বাজনার তালে হয়ে গেলেন একাকার। উরুগুয়ের এক পুরুষ খেলোয়াড় দিলেন নাচের নেতৃত্ব, তার সঙ্গে তাল মেলালেন বাকিরাও।

বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত কোনও খেলাতে উরুগুয়ের এটিই প্রথম অংশগ্রহণ। লিওনেল মেসির নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা ঢাকায় খেলে গেছে, ইংল্যান্ডের ক্রিকেট দল তো নিয়মিতই আসছে, খেলে গেছে হ্যান্ডবল কিন্তু উরুগুয়ের কোনও দলের এটিই বাংলাদেশে প্রথম পদার্পণ। দলের নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় দামিয়ান ইগলেসেলিয়াস। বাংলাদেশের আয়োজনে মুগ্ধ তিনি। তার অভিব্যক্তিটা ঠিক এরকম, ‘উরুগুয়ে খেলা পাগল দেশ, আমরা সুদূর উরুগুয়ে থেকে উড়ে এসেছি রোল বলকে পরিচিত করার জন্য। এখানে এসে খুব ভালো লাগছে আর যেটি আমাকে সবচেয়ে বেশি আলোড়িত করে সেটি হলো যেখানেই যাই সেখানেই দেখি লুই সুয়ারেসের ভক্ত।’

আর্জেন্টিনার মেয়ে দলের সদস্য আংকেলিস ধেলে পতাকা মুড়িয়ে এলেন কথা বলতে। ঢাকায় আর্জেন্টিনা নাইজেরিয়ার সঙ্গে খেলে গেছে তা এখানে আসার আগে শুনেছেন তিনি, ‘আমরা সবাই ফুটবল থেকে রোল বলে এসেছি। রোল বলটি আর্জেন্টিনায় ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কারণ আর্জেন্টাইনরা গতির খেলা পছন্দ করে, পুরুষ দল এখানে শিরোপার জন্য লড়বে।’

ইংল্যান্ডের মেয়ে দলের সদস্য গুলেঠের চোখেমুখে আনন্দের ছটা, ‘আমি অভিভূত, ভেন্যুটা চমৎকার, বাংলাদেশের কথা শুনেছি অনেক, অবশেষে আসলাম। ইংল্যান্ড আগামী রোল বল বিশ্বকাপ আয়োজনে আগ্রহী।’

/আরএম/

লাইভ

টপ