তামিমের বিশ্ব একাদশকে হারিয়ে এগিয়ে গেল পাকিস্তান

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৫৬, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫৬, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৭

তামিম ইকবাল করেছেন ১৮ বলে ১৮ রানআন্তর্জাতিক ক্রিকেটে গত কিছুদিন দারুণ সময় কাটাচ্ছেন তামিম ইকবাল। পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশের জার্সিতে তাই তার কাছে প্রত্যাশা ছিল অনেক বেশি। যদিও বাংলাদেশি ওপেনার তা পূরণ করতে পারেননি। ১৮ বলে ১৮ রান করে আউট হয়ে যান তামিম। বাংলাদেশি তারকার ব্যর্থতার দিনে পারেনি তার দল বিশ্ব একাদশও। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তান পেয়েছে ২০ রানের জয়। স্বাগতিকদের ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৯৭ রানের জবাবে ফাফ দু প্লেসিসের বিশ্ব একাদশ নির্ধারিত ওভার শেষে করতে পারে ৭ উইকেটে ১৭৭ রান। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০-তে এগিয়ে গেল পাকিস্তান।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর বিশ্বের বড় কোনও দল যায়নি পাকিস্তান সফরে। ক্রিকেট পাগল দেশটিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ ফেরাতে আয়োজন করা হয়েছে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ ফেরার দিনটা রাঙিয়ে নিয়েছে পাকিস্তান দারুণ জয় দিয়ে। ব্যাট-বলে সমান পারফরম করে বিশ্ব একাদশকে হারিয়েছে তারা সহজেই।

বাবর আজমের চমৎকার হাফসেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় সরফরাজ আহমেদরা। তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে বাবর খেলেছেন ৮৬ রানের কার্যকরী ইনিংস। ৫২ বলের ইনিংসটি তিনি সাজিয়েছেন ১০ চার ও ২ ছক্কায়। তার আগে ওপেনিংয়ে আহমেদ শেহজাদ খেলেন ৩৪ বলে ৩৯ রানের ইনিংস।

তার ওপেনিং সঙ্গী ফখর জামান অবশ্য সুবিধা করতে পারেনি। ৪ বলে করতে পারেন মাত্র ৮ রান। তবে পাকিস্তানের রান ২০০ ছুঁইছুঁই হওয়ার পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন শোয়েব মালিক। সাবেক এই অধিনায়ক ২০ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় করেন ৩৮ রান।

বিশ্ব একাদশের সবচেয়ে সফল বোলার থিসারা পেরেরা, শ্রীলঙ্কান পেসার ৫১ রানে নেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট নিয়েছেন মরনে মরকেল, বেন কাটিং ও ইমরান তাহির।

১৯৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতে মোটেও সুবিধা করতে পারেননি বিশ্ব একাদশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও হাশিম আমলা। ধীরগতির শুরুর পর তামিম যখন নিজের রূপে একটু একটু করে ধরা দিচ্ছিলেন, তখনই রুম্মান রইসের আঘাত। পাকিস্তানি পেসারের বলে তামিম ফেরেন ১৮ বলে ১৮ রান করে, যাতে ছিল ৩টি চারের মার।

তামিমের আউটের খানিক পরই প্যাভিলিয়নে ফেরেন আমলা (২৬)। টিম পেইন (২৫), দু প্লেসিস (২৯), গ্র্যান্ট এলিয়ট (১৪) ও পেরেরা (১৭) ভালো শুরু করেও পারেননি ইনিংস লম্বা করতে। শেষ দিকে ড্যারেন সামি (১৬ বলে ২৯*) ঝড় তুললেও দেরী হয়ে গিয়েছিল অনেক। তাই ২০ রানের হারে প্রথম ম্যাচ শেষ হয় বিশ্ব একাদশের।

বল হাতে পাকিস্তানের জয়ে অবদান রেখেছেন সোহেল খান, রুম্মান রইস ও শাদাব খান। তিনজনই পেয়েছেন দুটি করে উইকেট। অবশ্য ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠেছে হাফসেঞ্চুরিয়ান বাবর আজমের হাতে। ক্রিকইনফো

/কেআর/

লাইভ

টপ