জয়ে শেষ কুমিল্লার লিগ পর্ব

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:১০, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:২৩, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৭

লিগ পর্বের শেষটা জয়ে রাঙালো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সপয়েন্ট টেবিলের হিসাব ধরলে এই ম্যাচটা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের জন্য ছিল ‘শুধুই একটি খেলা’। হারলেও যে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) টেবিলের শীর্ষেই থাকতো তারা। তবে কোয়ালিফায়ারে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে আত্মবিশ্বাস ফেরানোটা জরুরি ছিল কুমিল্লার। সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে ২৫ রানের জয়ে সেই কাজটাও সেরে নিয়েছে তারা। ব্যাট হাতে শুরুতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে কুমিল্লা স্কোরে ১৭০ রান যোগ করার পর ৭ উইকেটে ১৪৫ রানের বেশি করতে পারেনি সিলেট।

বিপিএলে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে এই জয়টা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে কুমিল্লা ক্যাম্পে। কারণ আগের ম্যাচেই তারা হেরে গিয়েছিল খুলনার বিপক্ষে। সিলেটের বিপক্ষে জয়টা তাই ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে কোয়ালিফায়ার ম্যাচে আত্মবিশ্বাস জোগাবে তাদের।

শীর্ষস্থান আগে থেকে নিশ্চিত ছিল বলেই হয়তো তামিম ইকবাল বিশ্রামে ছিলেন। তার অনুপস্থিতিতে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করা শোয়েব মালিক অবশ্য ঠিকই পথে ফিরিয়েছেন কুমিল্লাকে। তামিমের অনুপস্থিতিতে ওপেনিংয়ে দায়িত্ব সামলেছেন লিটন দাস। তবে পজিশনে উন্নতি হয়ে ওপেনিংয়ে নামা জস বাটলার ছিলেন ব্যর্থ। ইংলিশ এই উইকেটরক্ষক মাত্র ৩ রানে ফেলেন প্যাভিলিয়নে। ইমরুল কায়েসও আউট হয়ে যান ৭ রানে। তবে মারলন স্যামুয়েলসের সঙ্গে লিটনের অসাধারণ ব্যাটিং পথে ফেরায় কুমিল্লাকে।

দুজনই পূরণ করেন হাফসেঞ্চুরি। লিটন ৪৩ বলে খেলে যান ৬৫ রানের কার্যকরী ইনিংস, যাতে ছিল ৬ চারের পাশাপাশি ৩ ছক্কার মার। আর স্যামুয়েলস আউট হওয়ার আগে করেন ৫৫ রান। ৪৩ বলের ইনিংসটি তিনি সাজিয়েছেন ৫ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায়। তার আউটের পর অধিনায়ক মালিক ঝড় তোলেন মিরপুরে। ১৮ বলে এক চার ও ২ ছক্কায় অপরাজিত ২৮ রান করে কুমিল্লার স্কোর নিয়ে যান ১৭০ পর্যন্ত।

জবাবে গ্রায়েম ক্রেমার (৩/১৫), মেহেদি হাসান (২/৩১) ও হাসান আলীর (২/৩৫) বলের সামনে কঠিন পরীক্ষা দিতে হয় টুর্নামেন্ট থেকে আগেই বিদায় নেওয়া সিলেটকে। দলটির হয়ে সর্বোচ্চ ৩১ রান করেছেন সাব্বির রহমান। ২০ বলের ইনিংসে মেরেছেন ৪টি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কা। ২৫ রান করেন আন্দ্রে ফ্লেচার, আর বাবর আজম খেলেন ২০ রানের ইনিংস।

/কেআর/

লাইভ

টপ