ডিকবেলাকে ফেরালেন রুবেল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:৫৪, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৫৭, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৮

নিরোশান ডিকবেলানিরোশান ডিকবেলাকে বেশিদূর যেতে দিলেন না রুবেল হোসেন। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের হাতে ক্যাচ বানিয়ে লঙ্কান উইকেটরক্ষককে ফিরিয়েছেন এই পেসার। ডিকবেলার আউটের পর সফরকারীদের স্কোর ১২ ওভারে ৪ উইকেটে ১৩০।

মিরপুরে ঝড় তুলেছিলেন কুশল মেন্ডিস। ওপেনিংয়ে নেমে বাংলাদেশের বোলারদের রীতিমত শাসন করা এই ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়েছেন আফিফ হোসেন। শুরুটা করেছিলেন ধীরগতিতে। অন্যপ্রান্তে দানুশকা গুনাথিলাকা মারমুখী থাকায় তিনি ছিলেন ‘নীরব’। তবে সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে হাত খুলতে থাকেন কুশল মেন্ডিস। মোস্তাফিজুর রহমানের করা এক ওভারে টানা তিনটি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন এই ব্যাটসম্যান।

বিধ্বংসী রূপে হাজির হওয়া কুশল তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম হাফসেঞ্চুরিও। তবে বেশিদূর যেতে পারেননি আর, ৫৩ রানেই তাকে থামান অভিষিক্ত আফিফ। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ২৭ বলের ইনিংসটিতে তিনি মেরেছেন ৮ চারের সঙ্গে ২ ছক্কা।

কুশলের আউটের পর আবার বাংলাদেশের আঘাত। নিজের দ্বিতীয় শিকার বানিয়ে নাজমুল হোসেন প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান উপুল থারাঙ্গাকে। ওয়ান ডাউনে নেমে মোটেও সুবিধা করতে পারেননি এই ব্যাটসম্যান, নাজমুলের বলে মাত্র ৪ রান করে তালুবন্দী হন আফিফের হাতে।

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ১৯৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেছিল শ্রীলঙ্কা। দুই ওপেনারের ব্যাটে ভর করে ৫০ ছাড়ায় লঙ্কানদের স্কোর। শুরুতে কুশল তুলনামূলক ধীরস্থির থাকলেও গুনাথিলাকা ছিলেন আগ্রাসী। পঞ্চম ওভারে অভিষিক্ত নাজমুলের ইসলামের বলে ফিরতে হয় প্যাভিলিয়নে। 

ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসেছিলেন এই ব্যাটসম্যান, সুযোগ বুঝে তাকে স্টাম্পড করে ছাড়েন মুশফিকুর রহিম। গুনাথিলাকা ফেরেন ৩০ রানে। 

এর আগে ৫ উইকেটে ১৯৩ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতে এটাই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ।

/কেআর/

লাইভ

টপ