যে ছবি বিপদে ফেলে দিয়েছে জার্মানিকে

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:১৯, জুন ১৩, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:০৩, জুন ১৩, ২০১৮

তুুরস্কের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে এই ছবি তুলেই বিপদে ওজিল ও গুন্ডোগান।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে বিতর্কের ঝড় জার্মানিতে। বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে জার্মান দলের দুজন তারকা। একজন হলেন মেসুত ওজিল, আরেকজন ইকেই গুন্ডোগান। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের সঙ্গে কয়েক মাস আগে তোলা এক ছবিকে ঘিরেই চলছে এমন বিতর্ক। এমন ঘটনায় একাদশ নির্বাচনে খড়গের মুখে পড়তে পারেন এই দুই ফুটবলার। এমনই ভাবনা জার্মানির ম্যানেজার বিয়েরহফের।

পাবলিক রিলেশনের দায়িত্বে থাকা এই ম্যানেজার সাবেক জার্মান জাতীয় ফুটবলার। তিনি মনে করেন, জার্মান কোচ ইওয়াখিম ল্যোভ লোকপ্রিয়তাকে প্রাধান্য দেন না। চলমান বিতর্ক নিয়ে উদ্বিগ্ন বিয়েরহফের মতে, ‘ল্যোভ লোকজনকে খুশি করে কোনও সিদ্ধান্ত নেন না। খেলার বিষয়গুলো মাথায় নিয়েই সিদ্ধান্ত নেন। তবে আমার মনে হয় এক্ষেত্রে বিষয়গুলো দল নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে।’

জার্মান বংশোদ্ভূত হলেও ওজিল ও গুন্ডোগানের বাবা-মা তুরস্ক বংশোদ্ভূত। আর এই দুই তারকাই গত মে মাসে লন্ডনে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন একটি ছবি তুলে। তুরস্কের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ছবি তুলে পোস্ট দেন জার্মানির প্রাথমিক দল ঘোষণার আগের দিন।

সোস্যাল মিডিয়ায় তা ছড়িয়ে পড়ে দ্রুত। একই সঙ্গে উসকে দেয় রাজনৈতিক বিতর্কের। এমনিতে তুরস্কের সঙ্গে জার্মানির সম্পর্ক শীতল। তাই এ নিয়ে দুই ফুটবলারের কঠোর সমালোচনা করেন জার্মান ফুটবল প্রধান।

বিপরীত এমন স্রোতে অবশ্য গা-ভাসাননি জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল। এই ছবি নিয়ে জার্মান চ্যান্সেলর মন্তব্য করতে বাধ্য হন তাদের পক্ষ নিয়ে। পরিস্থিতি যে তাদের প্রতিকূল। বিশেষ করে অস্ট্রিয়া ও সৌদি আরবের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচে তাদের খেলানো নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়েছে অনেক। এমন অবস্থায় তাদের সমর্থনে সবার কাছেই ইতিবাচক মনোভাবের আহ্বান করেন জার্মান চ্যান্সেলর। তার দাবি, ‘দুজনেই জার্মান জাতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করে। তাদের এই দলের প্রয়োজন। তাই আমি তখন খুব খুশি হবো যখন কিছু ভক্ত তাদের হয়ে করতালি দেবে।’

তিনি আরও বিশ্বাস করেন, ‘আমার মনে হয় এই ছবি তোলার প্রতিক্রিয়া এত তীব্র হবে সেটা তারা ভাবেননি।’

তবে এতসব বিতর্কের মাঝে মনোযোগটা যেন খেলাতেই থাকে তার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিয়েরহফ, ‘আমার ছেলেদের প্রতি অনুরোধ থাকবে তারা যেন বিশ্বকাপে খেলার দিকেই মনোযোগ দেয়।’

/এফআইআর/চেক-এমওএফ/

লাইভ

টপ