গ্রিয়েজমানের পেনাল্টি গোলে আবার এগিয়ে ফ্রান্স

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৪০, জুলাই ১৫, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৪৬, জুলাই ১৫, ২০১৮

fl9qqjpf92l9d8b781jnজমে উঠেছে বিশ্বকাপ ফাইনালের লড়াই। আত্মঘাতী গোলে ১৮ মিনিটে এগিয়ে যাওয়া ফ্রান্সকে ২৮ মিনিটে গোল শোধ দেয় ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু ৩৮ মিনিটে আবার পেনাল্টি থেকে আন্তোয়ান গ্রিয়েজমান দলের দ্বিতীয় গোল করেন।

শুরু থেকে বল দখলে এগিয়ে ছিল ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু এক ফ্রি কিকে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। বিশ্বকাপ ফাইনালে গ্রিয়েজমানের ফ্রি কিক বিপদমুক্ত করতে গিয়ে মারিও মানজুকিচের হেডে আত্মঘাতী গোল তাদের উদযাপনের সুযোগ করে দেয়। তবে ২৮ মিনিটে বাঁ পায়ের চমৎকার শটে গোল করে ক্রোয়েটদের সমতায় ফেরান ইভান পেরিশিচ। ১০ মিনিট পর গ্রিয়েজমানের বাঁ পায়ের পেনাল্টি কিক দানিয়েল সুবাসিচকে ভুল দিকে পাঠিয়ে জালে জড়ায়।

৫ মিনিটে আন্তে রেবিচ ডান দিকে বল পাঠান সিমে ভ্রাসালকোকে। তিনি ক্রস দেন ডিবক্সের মধ্যে মারিও মানজুকিচকে। কিন্তু তার কাছে বল পৌঁছার আগেই হেডে বিপদমুক্ত করেন স্যামুয়েল উমতিতি।

প্রথম ১৫ মিনিটে দাপট দেখিয়েছে ক্রোয়েটরা। ফ্রান্সের গ্রিয়েজমান ও কাইলিয়ান এমবাপে বল পায়েই পাননি। ১১ মিনিটে ইভান স্ত্রিনিচের তুলে দেওয়া বল ডিবক্সের মধ্যে ইভান পেরিশিচ পা বাড়িয়ে নিয়ন্ত্রণে নিলেও রাখতে পারেননি। ৪ মিনিট পর বাঁ দিক থেকে বক্সের মধ্যে বল পাঠান। কিন্তু মানজুকিচ বল দখল নেওয়ার আগেই উমতিতি চমৎকারভাবে ফিরিয়ে দেন। ১৮ মিনিটে মার্সেলো ব্রোজোভিচ বিপজ্জনক জায়গায় ফাউলের শিকার হন গ্রিয়েজমান। তার ফ্রি কিক থেকে আত্মঘাতী গোল করেন মানজুকিচ। কোনও বিশ্বকাপ ফাইনালে এটাই ছিল প্রথম আত্মঘাতী গোল।

২৮ মিনিটে দোমাগোজ ভিদার পাস থেকে বক্সের মধ্যে বল নিয়ে বাঁ পায়ের চমৎকার শটে পেরিশিচ ক্রোয়েশিয়াকে সমতা এনে দেন। তবে ৩৪ মিনিটে গ্রিয়েজমানের কর্নার বক্সের মধ্যে তার হাতে লাগলে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির ব্যবহারে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। গ্রিয়েজমান করেন ফ্রান্সের দ্বিতীয় গোল। ১২ বছর পর ফাইনালে ফ্রান্স, লক্ষ্য তাদের দ্বিতীয় শিরোপা। আর প্রথমবার ফাইনালে উঠে চমক দেখানোর অপেক্ষায় ক্রোয়েশিয়া। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে দুই দল।

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ