ফাইনালে মালদ্বীপের প্রতিপক্ষ ভারত

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:০৫, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩১, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

দুই গোল করে জয়ের নায়ক মানভির সিংকে ভারতের কোচ স্টিভেন কনস্ট্যানটিনের আদরসাফ ফুটবল মানেই ভারতের জয়জয়কার। টুর্নামেন্টে ৭ বারের চ্যাম্পিয়ন ও তিনবারের রানার্স-আপরা আবারও ফাইনালে। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দেওয়া ভারত আগামী শনিবার ফাইনালে মুখোমুখি হবে মালদ্বীপের।

বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ পেলেও গোলের দেখা পায়নি ভারত। বিনিত রাই, মানভির সিং আর আশিক কুরুনিয়ানের প্রচেষ্টা নষ্ট করে পাকিস্তানের গোলপোস্ট অক্ষত রেখেছেন গোলকিপার ইউসুফ বাট।

প্রথমার্ধের শেষদিকে সুযোগ পেয়েছে পাকিস্তানও। কিন্তু মোহাম্মদ রিয়াজ-হাসান বশীররা ব্যর্থ হয়েছেন বার বার। এর মধ্যে ৩৬ মিনিটে বক্সের ভেতরে ইনডিরেক্ট ফ্রি-কিকও পাকিস্তানকে গোল এনে দিতে পারেনি।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এগিয়ে যায় ভারত। ৪৮ মিনিটে কুরুনিয়ানের ক্রস থেকে মানভির সিংয়ের চমৎকার প্লেসিং শট জড়িয়ে যায় জালে। ৬৯ মিনিটে আবার মানভিরের গোল। বাঁদিক দিয়ে আক্রমণে উঠে লালিয়ানজুয়ালা পাস দেন বিনিতকে। বিনিতের বাড়ানো বল ধরে বক্সে ঢুকে জোরালো শটে গোলকিপারকে পরাস্ত করেন মানভির। ৮৪ মিনিটে কুরুনিয়ানের ক্রস থেকে সুমিত পাসির হেডে নিশ্চিত হয়ে যায় ভারতের জয়।

দুই মিনিট পর মাঠে চরম উত্তেজনা। বলের নিয়ন্ত্রণ নিতে গিয়ে লালিয়ানজুয়ালাকে ফাউল করেন বশির। মেজাজ হারিয়ে বশিরকে আঘাত করেন লালিয়ানজুয়ালাও। দুজনের তর্কাতর্কির মধ্যেই লালিয়ানজুয়ালাকে ধাক্কা দেন মহসিন আলী। পরিস্থিতি ঠাণ্ডা করতে মহসিন আর লালিয়ানজুয়ালাকে রেফারি লাল কার্ড দেখালে শেষের কয়েক মিনিট দুই দলকে খেলতে হয়েছে ১০ জন নিয়ে।

৮৮ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া বশিরের জোরালো শট ভারতের গোলকিপার বিশাল কাইথকে বোকা বানিয়ে চলে যায় জালে। তবে এই গোলটি শুধু সান্ত্বনাই দিতে পেরেছে পাকিস্তানকে। 

/টিএ/এএআর/

লাইভ

টপ