লিটনের বিতর্কিত স্টাম্পিংয়ে টুইটারে ঝড়

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:০৮, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৭, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮

twitt 4উদ্বোধনী জুটিতে মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে একশ ছাড়ানো জুটি গড়েছিলেন লিটন দাস। তারপর বাংলাদেশ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে দলকে এগিয়ে নেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করে এক বিতর্কিত স্টাম্পিংয়ের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় এই ওপেনারকে, যে আউট নিয়ে টুইটারে রীতিমতো ক্ষোভের ঝড় উঠেছে।

৮৮ বলে সেঞ্চুরি করার কিছুক্ষণ পর কুলদীপ যাদবকে বোলিংয়ে আনে ভারত। তার গুগলি বুঝতে পারেননি লিটন। সামনে এগিয়ে এসে মারতে চাইলেও বলে ব্যাট লাগাতে পারেননি। বল গ্লাভসে ভরে যখন উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনি স্টাম্প ভাঙলেন, ওই মুহূর্তে লিটনের পেছনের পা পড়ল পপিং ক্রিজে।

সিদ্ধান্ত ছেড়ে দেওয়া হয় টিভি আম্পায়ার রড টাকারের হাতে। টিভিতে বিভিন্ন পাশ থেকে লিটনের পা দেখা গেছে লাইনে। এসব ক্ষেত্রে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত সাধারণত ব্যাটসম্যানের পক্ষে যায়। কিন্তু এবার গেল ফিল্ডিং দলের পক্ষে। এনিয়ে আইসিসিকে একহাত নিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তরা।

twit 1তানিব ইমতিয়াজ নামের একজন টুইটারে লিটনের স্টাম্পিং হওয়ার মুহূর্তের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আমরা এই পাশ থেকে পরিষ্কার দেখতে পাচ্ছি সেঞ্চুরি করা লিটন দাসের পা লাইনের পেছনে আছে। কিন্তু আম্পায়ার তাকে আউট দিলেন। কারণ তিনি জানেন যদি এই ম্যাচে তাকে আউট না দেওয়া হয় তাহলে এটাই তার আম্পায়ারিংয়ে শেষ ম্যাচ।’

আইসিসিকে ভারতের অঙ্গ হিসেবে দেখছেন রক্তিম পাটোয়ারী, ‘আইসিসি= আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল? নাকি আইসিসি= ইন্ডিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল?’

আর আবেদীন তমাল আইসিসির নতুন নিয়ম নিয়ে সন্দিহান, ‘আইসিসির নতুন নিয়ম, কোনও সংশয়ের সুবিধা পাবে ভারত।’

twiteraaথার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে হতবাক ইলিয়াস আহমেদ, ‘এটা থার্ড আম্পায়ারের একেবারেই অন্যায় এবং খুবই বাজে সিদ্ধান্ত ছিল। লিটন দাস লাইনেই ছিল।’

মোহাম্মেদ নাকাশ লিখেছেন, ‘লিটন দাস আউট ছিল না। আম্পায়ার ভারতের পক্ষে ছিল। আইসিসিকে ধিক্কার।’

নাকাশের সঙ্গে সায় মিলিয়েছেন সুমন চন্দ্র দেবনাথ, ‘আজকের ম্যাচে ইনি থার্ড আম্পায়ার। তার সিদ্ধান্ত বাজে ছিল। ভারতের হয়ে কাজ করেছেন তিনি। বাংলাদেশ খেলোয়াড় লিটন দাসের আউট সঠিক ছিল না। আইসিসি ও থার্ড আম্পায়ারকে ধিক্কার।’ ইন্ডিয়া টুডে, দ্য কুইন্ট   

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ