নোফেলের কাছে হেরে ‘উত্তপ্ত’ মোহামেডান

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:০৬, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:০৭, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮

মোহামেডান-নোফেল ম্যাচের একটি মুহূর্তস্বাধীনতা কাপ ফুটবলের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে হলে জয়টা ভীষণ দরকার ছিল মোহামেডানের। কিন্তু নোফেল স্পোর্টিংয়ের কাছে ২-০ গোলে হেরে এখন শেষ আটে খেলা অনিশ্চিত তাদের। হারের ধাক্কাটা মেনে নিতে পারেনি সাদা-কালো শিবির। ম্যাচ শেষে নিজেদের মধ্যেই হাতাহাতির উপক্রম!

‘বি’ গ্রুপে দুই ম্যাচ শেষে চট্টগ্রাম আবাহনী ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে, কোয়ার্টার ফাইনালও নিশ্চিত হয়ে গেছে তাদের। অন্যদিকে ৩ পয়েন্ট নিয়ে নোফেল তৃতীয়, আর রহমতগঞ্জ ও মোহামেডান ১ পয়েন্ট নিয়ে পরের দুই স্থানে।

বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ম্যাচের ২৮ মিনিটে গিনির ফরোয়ার্ড ইসমাইল বাঙ্গুরার বাড়িয়ে দেওয়া বলে মিডফিল্ডার খন্দকার আশরাফুল ইসলাম অনেকটা ফাঁকায় প্লেসিং শটে নোফেলকে এগিয়ে নেন। ৪৪ মিনিটে মিডফিল্ডার ফরহাদ মনার জোরালো শট বারের ওপর দিয়ে গেলে ব্যবধান বাড়াতে পারেনি তারা।

এক গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতির পর মোহামেডান একাধিক সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু গোল পায়নি। ৭৪ মিনিটে ডিফেন্ডার মোহাম্মদ লিংকনের জোরালো শট বারের ওপর দিয়ে যায়। ৮০ মিনিটে গাম্বিয়ার মিডফিল্ডার ল্যান্ডিংয়ের ফ্রি কিক গোলরক্ষক ফিস্ট করে প্রতিহত করেন।

পাঁচ মিনিট পর বদলি মিডফিল্ডার পাশবন মোল্লার শট ক্রসবারে লাগলে মোহামেডান সমর্থকদের হতাশ হতে হয়। দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি টাইমের শেষ মিনিটে মিডফিল্ডার মোহাম্মদ রোমান ফাঁকা পোস্টে বল ঠেলে দিয়ে নিশ্চিত করে নোফেলের জয়।

হারটা মেনে নিতে পারেনি মোহামেডান। ম্যাচ শেষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে তারা। ডাগ আউটে এসে খেলোয়াড়রা একে অন্যের ওপর দোষ চাপাতে থাকেন। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয় যে, দুই ফুটবলার ইউসুফ সিফাত ও আতিকুর রহমান মিশুর মধ্যে হাতাহাতির হওয়ার উপক্রম! শেষমেষ দলের ম্যানেজারের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি শান্ত হয়।

মোহামেডানের ইংলিশ কোচ ক্রিস্টোফার ইভান্স নেই। অসুস্থ থাকায় দেশে ফিরে গেছেন তিনি। বলতে গেলে দল চলছে অভিভাবকহীন অবস্থায়! যদিও দলের ম্যানেজার আমিরুল ইসলাম বাবু আশাবাদী পরের ম্যাচে ভালো করার।

ম্যাচ জিতে খুশি নোফেলের কোচ কামাল আহমেদ বাবু, ‘জেতার লক্ষ্য নিয়ে মাঠে এসেছিলাম। আমরা সফল হয়েছি। আশা করছি শেষ ম্যাচে পয়েন্ট নিয়ে শেষ আটে খেলতে পারব।’

/টিএ/কেআর/

লাইভ

টপ