‘ইংলিশ ক্রিকেটারদের উন্নতিতে ভূমিকা রাখতে পারে বিপিএল’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:০০, জানুয়ারি ১০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২৪, জানুয়ারি ১০, ২০১৯

ইয়ান বেল।প্রথমবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) খেলতে এসেছেন ইংলিশ ক্রিকেটার ইয়ান বেল। ঢাকা ডায়নামাইটস দুটি ম্যাচে জয় পেলেও দলের হয়ে খেলার সুযোগ পাননি তিনি। তবে বাংলাদেশ সফরের সময়টা বেশ উপভোগ করছেন বলে জানালেন ৩৬ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জানালেন মুখিয়ে আছেন খেলতে।

বৃহস্পতিবার ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে বিপিএলে প্রথমবার অংশ নেওয়ার প্রশ্নে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান অনুভূতির কথা জানালেন এভাবেই, ‘বাংলাদেশে সময়টা খুব উপভোগ করছি। এই সপ্তাহটা আমাদের দারুণ গেছে, দুটি জয়ে শুরু। এমন শুরুটা আমিও উপভোগ করছি। আশা করছি হয়তো আমিও কিছু খেলার সুযোগ পাবো। তবে আমাদের শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছে।’

ঢাকা ডায়নামাইটস এখন পর্যন্ত হারিয়েছে খুলনা টাইটানস ও রাজশাহী কিংসকে। দাপুটে ভঙ্গিতে এই ম্যাচগুলো জিতেছে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। তবে এই ম্যাচগুলোতে এখনও ঢাকার জার্সি পড়ে খেলার সুযোগ হয়নি তার। ঢাকার বেঞ্চ বেশ সমৃদ্ধ থাকায় খেলার সুযোগ পাওয়াটা ভীষণ কঠিন বলে মনে করেন তিনি, ‘যারা খেলছে তারা সবাই দুর্দান্ত খেলছে। আমি সুযোগ পেলে ভালো তবে যদি না পাই তাহলেও সমস্যা নেই। আমি আরও বেশি শেখার সুযোগ পাবো, অনুশীলন করবো যত পারি। এখানকার সুযোগ সুবিধাও ভালো। আমরা ভাগ্যবানও এই দলে বিশ্বমানের খেলোয়াড় রয়েছে। ওরা যেভাবে খেলছে তাতে দলে সুযোগ পাওয়া বেশ কঠিন।’

শুক্রবার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে ঢাকা। ঢাকার মতো রংপুরও শক্তিশালী দল। তিনটি ম্যাচ খেলে তাদের জয় দুটিতে। এমন ম্যাচে জমজমাট লড়াই হবে বলে মত তার, ‘কালকের ম্যাচটি বড় দলের বিপক্ষে, ওদের খেলোয়াড়রাও বেশ শক্তিশালী। তাদের অনুশীলনের মাত্রা ভালো। আশা করছি ভালো একটি ম্যাচ হবে কাল। বিশ্বের সেরাদের বিপক্ষে খেলতে হবে এমন কামনাই সবাই করে। মনে হচ্ছে কালকের ম্যাচ উপভোগ্য হবে।’

অস্ট্রেলিয়ার বিগব্যাশ বাছাই না করে বিপিএল বাছাই করেছেন ইয়ান বেল। এমন প্রাধান্য দেওয়ার পেছনে কন্ডিশন ভাবনা কাজ করেছে তার। তিনি মনে করেন ইংলিশ ক্রিকেটারদের মান উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে এখানকার কন্ডিশন তথা বিপিএল, ‘ভালো করেছি, কী বলেন? ইংলিশ ক্রিকেট ভাবনা থেকে যদি বলি তাহলে এখানকার কন্ডিশনে খেলতে পারাটা ভিন্ন মাত্রা যোগ করে। দেশে সাদা বলের ক্রিকেটে বেশ জোর দেওয়া হয়, সেই ভাবনা থেকে অভ্যস্ত জায়গার বাইরে খেলার মানসিকতা গড়া দরকার। ভিন্ন কন্ডিশনে খেলে নিজেকে চ্যালেঞ্জের সামনে ফেলাটা ভালো। একইভাবে ভিন্ন প্রতিযোগিতার বেলাতেও সেই কথাটা খাটে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমার তো বয়েস হয়েছে, এই বয়সেও এখানে আসতে পেরে ভালোই লাগছে। তবে তরুণ যারা খেলবে তারা সাকিব ও বিশ্বমানের খেলোয়াড়দের সঙ্গে এই কন্ডিশনে খেলে ভালো অভিজ্ঞতা অর্জন করবে। তারা যখন দেশের মাটিতে খেলবে সেক্ষেত্রে তারা আরও ভালো খেলোয়াড় হয়ে গড়ে উঠবে।’

/এফআইআর/

লাইভ

টপ