ভাইকিংসের বিপক্ষে খুলনার রান ১৫১

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:৩১, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৩৭, জানুয়ারি ১২, ২০১৯

জুনায়েদ সিদ্দিকীর ব্যাটে খুলনা পায় দারুণ শুরুচলতি বিপিএলে প্রথম জয়ের খোঁজে খুলনা টাইটানস। ঘুরে দাঁড়ানোর ম্যাচে শনিবার শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে তারা চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে খুলনা করেছে ১৫১ রান।

ডেভিড মালান ও মাহমুদউল্লাহ রানে ফিরলেও ভাইকিংসের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে স্কোর বেশি বড় করতে পারেনি খুলনা। মালান করেছেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৪৫ রান, আর মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে এসেছে গুরুত্বপূর্ণ ৩৩ রান।

তাদের ব্যাটে বড় সংগ্রহের ইঙ্গিত থাকলেও পরপর দুই বলে দুই উইকেট হারিয়ে ফেলায় রান বেশিদূর যায়নি খুলনার। সানজামুল ইসলাম ১৮তম ওভারের প্রথম বলে ফেরান আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠা কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকে (১২)। পরের বলেই এই স্পিনারের শিকার মাহমুদউল্লাহ।

পরের ব্যাটসম্যানরাও সুবিধা করতে পারেননি। নাজমুল হোসেন শান্ত আউট ৬ রানে। আরিফুল হক অপরাজিত থাকেন ৮ বলে ৯ রানে। আর মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের ব্যাট থেকে আসে ৪ বলে ৪*রান।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে অবশ্য দারুণ শুরু এনে দিয়েছিলেন জুনায়েদ সিদ্দিকী ও স্টারলিং। মাত্র ২.৩ ওভারে তারা স্কোরে জমা করেন ৩১ রান। নাঈম হাসানের ঘূর্ণিতে আবু জায়েদের হাতে স্টারলিং ধরা পড়লে খুলনা হারায় প্রথম উইকেট। তার আগে ১০ বলে ২ চার ও এক ছক্কায় আইরিশ ওপেনার খেলে যান ১৮ রান।

জুনায়েদ সিদ্দিকী অবশ্য অন্যপ্রান্ত ধরে রেখে দলের রান বাড়িয়ে যাচ্ছিলেন। তবে বেশিদূর তাকে যেতে দেননি রবি ফ্রাইলিঙ্ক। এই পেসারের বলে বিগ শট খেলতে গিয়ে সহজ ক্যাচ দেন তিনি মোসাদ্দেক হোসেনের হাতে। ১৫ বলে ২ চার ও এক ছক্কায় জুনায়েদ খেলেন ২০ রানের ইনিংস।

ভাইকিংসের সবচেয়ে সফল বোলার সানজামুল। এই স্পিনার ৪ ওভারে ৩৭ রান দিয়ে পেয়েছেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট শিকার ফ্রাইলিঙ্ক, নাঈম হাসান, খালেদ আহমেদ ও আবু জায়েদের।

/কেআর/

লাইভ

টপ