তামিমের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে কুমিল্লার সংগ্রহ ১৯৯

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:৪৪, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৪, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৯

বিধ্বংসী ইনিংস উপহার দিয়েছেন তামিম ইকবাল।বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের ফাইনালে বিধ্বংসী এক ইনিংস খেললেন ওপেনার তামিম ইকবাল। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে তার তাণ্ডবে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে ৩ উইকেটে ১৯৯ রানের বিশাল সংগ্রহ করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

অথচ তাদের শুরুটা ছিলো ধীর গতির। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনার এভিন লুইস দ্বিতীয় ওভারে ফিরলে তামিম ইকবাল ধীর গতিতে ব্যাট চালিয়ে খেলেন প্রথম দশ ওভার। সঙ্গে এনামুল বিজয়ও খেলতে থাকেন রয়ে সয়ে।

খোলসবন্দী তামিম ইকবাল খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসেন দশ ওভার পর। প্রথম পাওয়ার প্লেতে রানের চাকা সমৃদ্ধ না হওয়ায় কুমিল্লার সংগ্রহটা যে বেশি হবে না-এক সময় তা মনে হয়েছিলো। সেই ধারণা অবশ্য বারুদ ঠাসা এক ইনিংসে উড়িয়ে দেন তামিম ইকবাল। যার সবটুকু লুকিয়ে রেখেছিলেন প্রথম দিকে। যার বিপিএলে এর আগে ছিলো না কোনও সেঞ্চুরি! একই সঙ্গে এবারই প্রথম বিপিএল ফাইনালে খেললেন কুমিল্লার হয়ে।

বিদেশি তারকারা যেখানে আলোকিত করছেন বিপিএল, সেখানে ফাইনালে এক বিধ্বংসী ইনিংসেই সব অতৃপ্তি মেটালেন বাঁহাতি ওপেনার। ৬১ বলে অপরাজিত ছিলেন ১৪১ রানে। ঢাকার বোলারদের ১০টি চার ও ১১টি ছক্কায় শাসন করেছেন শেষ বল পর্যন্ত। মাঝখান দিয়ে ভুল বোঝাবুঝিতে শামসুর রান আউট হলে অধিনায়ক ইমরুল অপর প্রান্তে থেকে সঙ্গ দিয়েছেন শুধু ১৭ রান করে।

অবশ্য এনামুল বিজয় ৩০ বলে ২৪ রানে এলবিডাব্লিউ হলেও ভুল সিদ্ধান্তের বলি হয়েছেন দ্রুত। রিভিউ না থাকায় ব্যাটে বল লাগলেও সাজঘরের পথ ধরতে হয়েছে তাকে।

ঢাকার অধিনায়ক সাকিব ১ উইকেট নিতে খরচ করেন ৪৫ রান আর রুবেল খরচ করেন ৪৮ রান, বিনিময়ে তিনিও নেন একটি।

/এফআইআর/

লাইভ

টপ