আত্মবিশ্বাসী আবাহনীর সামনে মিনার্ভা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৩:১১, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:১৩, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

অনুশীলনে আবাহনীএএফসি কাপে দারুণ সূচনা হয়েছে আবাহনী লিমিটেডের। নেপালের মাঠে মানাং মার্সিয়াংদির বিপক্ষে জয়টা এক গোলে। আজ বুধবার দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের মিনার্ভা পাঞ্জাবের বিপক্ষেও জয় পেতে মুখিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা। আগের চেয়ে আরও আত্মবিশ্বাসী আকাশি-নীলরা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মাঠে নামবে সন্ধ্যা পৌনে ৬টায়। 

মানাংয়ের বিপক্ষে আফগানিস্তানের ডিফেন্ডার মাসিহ সাইগানির হেডে জয়টা এসেছিল। তারপরেও স্বাগতিকদের কম আক্রমণ সামলাতে হয়নি। রক্ষণ থেকে শুরু করে গোলকিপারকে পর্যন্ত ব্যতিব্যস্ত করে রেখেছিলো। সেই ম্যাচ জয়ের পর এবার মিনার্ভা পাঞ্জাবের বিপক্ষে লড়াই করতে প্রস্তুত আবাহনী। দলের অধিনায়ক ও গোলকিপার শহীদুল আলম সোহেল রক্ষণ অটুট রাখতে দৃঢ় প্রত্যয়ী। নিজ দলকে কোনও গোল হজম করাতে রাজী নন। বরং আগের চেয়ে তাদের বেড়ে যাওয়া আত্মবিশ্বাসটাই ঝরলো তার কণ্ঠে, ‘আমরা জয়ের জন্য খেলবো। কোনও চাপ নিচ্ছি না। নিজেদেরে মাঠে লড়াই করে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে চাই। এছাড়া আমি নিজেও আগের চেয়ে মানসিক ভাবে চাঙা আছি।’

এএফসি কাপের শুরুর ম্যাচ ও প্রিমিয়ার লিগে শেখ জামালের বিপক্ষে ম্যাচ জিতে পুরো দল এখন উজ্জীবিত। অধিনায়ক নিজেই বললেন, ‘আগের দুই-তিনটা ম্যাচ যদি আমরা হারতাম তাহলে হয়তো মানসিকভাবে হতাশ থাকতাম কিন্তু আমরা জিতেছি। তাই সবার মানসিকতা উঁচুতে আছে।’ তিনি আরও যোগ করলেন, ‘নেপালের ম্যাচে কেবল আমি একা নই, দলের সবাই ভালো করেছিল। এ ম্যাচেও ৩ পয়েন্ট পেতে হলে সবাইকে ভালো করতে হবে। ব্যবধান কোনও বিষয় নয়, এ নিয়ে আমরা ভাবছিও না। আমাদের লক্ষ্য তিন পয়েন্ট।’

আই লিগে যতই নাজুক অবস্থানে থাকুক না কেন মিনার্ভা পাঞ্জাব, এএফসি কাপে আটঘাট বেঁধে অংশ নিচ্ছে তারা। স্থানীয় লিগে অন্য দল থেকে দুই বিদেশি খেলোয়াড় নিয়েছে। এছাড়া তাদের চার বিদেশির দুজন থাকবেন রক্ষণে। তাই আবাহনীর জন্য রক্ষণের বাধা পেরোনো হয়তো কঠিন হয়ে দাঁড়াতে পারে।

তবে তাদের সামলাতে সানডে ও জীবনও ফর্মে আছেন। দুজনে লিগে আট গোল করে যৌথভাবে শীর্ষে অবস্থান করছেন। এছাড়া শেষ ম্যাচে গোল পেয়েছেন হাইতির ফরোয়ার্ড কেরভেন্স বেলফোর্ট। জীবন তো নিজেদের মাঠ বলেই আরও আত্মবিশ্বাসী, ‘নিজেদের মাঠে খেলা। প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভেদ করে গোল করাই হবে মূল লক্ষ্য।’ মিনার্ভা পাঞ্জাবের মিডফিল্ডার শৌভিক দাসও জানালেন অভিন্ন লক্ষ্যের কথা, ‘আমরা তিন পয়েন্টের জন্য ঢাকায় এসেছি। আর এটাই আমাদের লক্ষ্য।’

/টিএ/এফআইআর/

লাইভ

টপ