স্কটল্যান্ডের স্পিনার কন ডি ল্যাঙ্গের মৃত্যু

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:১৮, এপ্রিল ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৮, এপ্রিল ১৯, ২০১৯

কন ডি ল্যাঙ্গে।গত বছর ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন স্কটল্যান্ডের বামহাতি স্পিনার কন ডি ল্যাঙ্গে। অপারেশন, কেমো থেরাপি দিয়ে চলছিলো তার বেঁচে থাকার লড়াই। শেষ পর্যন্ত সেই যুদ্ধে পরাজিত হয়ে বিদায় নিয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। বৃহস্পতিবার পরপারে পাড়ি জমিয়েছেন তিনি!

তাকে বাঁচাতে গত অক্টোবরে অনুদানের পরিকল্পনাও হাতে নিয়েছিলো ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম নেওয়া এই ক্রিকেটার স্কটিশদের হয়ে সবশেষ খেলেছেন ২০১৭ সালে। আরব আমিরাতে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে খেলেছিলেন। একই সঙ্গে সহ অধিনায়কের ভূমিকাতেও ছিলেন।

ল্যাঙ্গে ২০১৫ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন ১৩টি ওয়ানডে ও ৮টি টি-টোয়েন্টি। এই সময়ে জাতীয় দলের হয়ে স্মরণীয় পারফরম্যান্সও উপহার দিয়েছেন। কোনও পূর্ণ সদস্য দেশকে ওয়ানডেতে হারানোর কৃতিত্বটা তারা অর্জন করে ল্যাঙ্গের ঘূর্ণিতেই! ২০১৭ সালের ১৫ জানুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে জয়ে তিনি শিকার করেছিলেন ৫টি উইকেট! যা তার সর্বোচ্চ সাফল্য। এছাড়া কাউন্টিতেও খেলেছেন নর্দাম্পটনশায়ারের হয়ে।

এত অল্প বয়সে তার মৃত্যুকে ট্র্যাজেডি হিসেবে দেখছেন ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড চেয়ারম্যান টনি ব্রায়ান, ‘এত কম বয়সে ল্যাঙ্গের মৃত্যু ট্র্যাজেডির মতো। সে একই সঙ্গে স্কটল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকাসহ অনেক জায়গার ক্রিকেট সেবক ছিলো। সেটা ক্রিকেটার হোক বা কোচ হিসেবে। তবে সব কিছুর উপরে তাকে মনে রাখবো একজন নিষ্ঠাবান, সৎ খেলোয়াড় হিসেবে।’

তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার অ্যালান ডোনাল্ডও, ‘সকালে কন ডি ল্যাঙ্গের মৃত্যুর সংবাদ শুনে ভারাক্রান্ত। অসাধারণ যোদ্ধা ছিলো, যে অল্পতেই চলে গেলো। তার পরিবার ও সন্তানদের প্রতি রইলো সমবেদনা।’

/এফআইআর/

লাইভ

টপ