উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের টিকে থাকার লড়াই

Send
রবিউল ইসলাম, টন্টন থেকে
প্রকাশিত : ০৯:০৪, জুন ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৪৩, জুন ১৭, ২০১৯

ratan-04শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বৃষ্টিতে ম্যাচ ধুয়ে যাওয়ায় বিশ্বকাপে ৯ দিন পর মাঠে নামছে বাংলাদেশ। ওই খেলায় পয়েন্ট ভাগাভাগি করায় ৪ ম্যাচ শেষে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে বাংলাদেশ। বিশ্বমঞ্চে সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা টিকিয়ে রাখার লড়াইয়ে আজ (সোমবার) টন্টনে তারা মুখোমুখি হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের।  

টন্টনের ছোট্ট মাঠে ক্যারিবিয়ানদের রুখে দিতে গত তিন দিন ধরে প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ। সেমিফাইনালের টিকিট পেতে এই ম্যাচটি না জিতলে কঠিন সমীকরণের সামনে পড়তে হবে তাদের। অবশ্য বাইরের কোনও হিসেব করতে চায় না তারা, নিজেদের কাজটা ঠিকভাবে সেরে রাখাই লক্ষ্য। প্রথম ম্যাচ জেতার পর টানা দুই হার ও লঙ্কানদের বিপক্ষে পয়েন্ট হারানোর ক্ষত ভুলে ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ম্যাচ জিততে মুখিয়ে মাশরাফিরা।

বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় কুপার অ্যাসোসিয়েটস কাউন্টি গ্রাউন্ডে ম্যাচটি শুরু হবে। সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, গাজী টিভি, মাছরাঙা টেলিভিশন ও স্টার স্পোর্টস ১।

এই ম্যাচের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের সুখস্মৃতি বাংলাদেশকে উজ্জীবিত করতে যথেষ্ট। সেখানে লিগ পর্বে দুইবার ও ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথম কোনও বহুজাতিক সিরিজের ট্রফি জেতে বাংলাদেশ। যদিও ওই সিরিজে পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে খেলেনি উইন্ডিজ। তবে দারুণ জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়েই ঝাঁপিয়ে পড়বে বাংলাদেশ।

সম্প্রতি ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে বাংলাদেশের বোলাররা দারুণ করছেন। আয়ারল্যান্ডে তিন ম্যাচে সর্বোচ্চ ২৬১ রান করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। যদিও ওই দলে আন্দ্রে রাসেল ও ক্রিস গেইলসহ বেশ কয়েকজন ব্যাটসম্যান ছিলেন না। মাশরাফি অবশ্য দলের পেসারদের নিয়ে আত্মবিশ্বাসী, ‘আমাদের বোলাররা তাদের বিপক্ষে ভালো করছে। গত কয়েকটি সিরিজেই আসলে ভালো করছে। আশা করি কালকের ম্যাচেও আমাদের বোলাররা ভালো করতে পারবে।’

পরিসংখ্যানও বাংলাদেশের পক্ষে কথা বলছে। গত এক বছরে দুই দল ৯টি ম্যাচ খেলেছে। যার ৭টি জিতেছে মাশরাফিরা। ব্রিস্টলে লঙ্কানদের বিপক্ষে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ার পর টন্টনে নতুন ঠিকানা হয়েছে মাশরাফিদের। এখানে দুই দিন বিশ্রাম নিয়ে মানসিক ভাবে চাঙা হয়েছেন ক্রিকেটাররা। এবার লড়াইয়ে ফিরতে প্রস্তুত বাংলাদেশ।  

দলের সবাই স্বতঃস্ফূর্ত আছেন বিশ্বাস মাশরাফির, ‘আশা করি সবাই ঠিক আছে। আর মানসিক ব্যাপার নির্ভর করে ভিন্ন ভিন্ন ব্যক্তির ওপর। অনেক সময় খারাপ থাকলেও ভালো থাকার অভিনয় করতে হয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটটাই এরকম। কাজেই আমি আশা করি, বিশ্বকাপে ভালো করাটা এক দুইজনের পক্ষে সম্ভব না, এক দুইজনের দায়িত্বও না। আবার যার খারাপ যাচ্ছে তার এভাবে চিন্তা করা উচিত না যে, ভালো করা কেবল তারই দায়িত্ব। এভাবে ভাবলে হয় না। বিশ্বকাপে পারফরম্যান্স উঠানামা করে। আমরা ভালো খেলার চেষ্টা করছি। একটি জয় দলকে আবার ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা করবে।’

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ইনজুরি সমস্যায় ভুগছে বাংলাদেশ। শনিবার অনুশীলনে ডান কনুইয়ের কিছুটা নিচে আঘাত পেয়েছেন মুশফিক। যদিও তার অবস্থা উন্নতির দিকে। রবিবার কিছুক্ষণ ওয়ার্ম আপ সেরে উইকেটকিপিং অনুশীলন করেন। নেটে অবশ্য ব্যাটিং করেননি। তবে ইনডোরে কিছুক্ষণ অনুশীলন করেছেন এই ব্যাটসম্যান। আশার কথা খুব একটা সমস্যা অনুভব করেননি মুশফিক। অধিনায়ক মাশরাফিও তাকে দলে পেতে আশাবাদী, ‘মুশফিকের অবস্থা ভালো। আশা করি কালকে খেলতে সমস্যা হবে না। তবে ম্যাচের আগে ফিজিও আরও একবার মুশফিককে দেখে সিদ্ধান্ত নেবেন।’

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চোট পাওয়া সাকিব আল হাসান বিশ্রাম নিয়ে অনেকটাই সুস্থ হয়ে গেছেন। টানা দুই দিন নেটে দীর্ঘক্ষণ ব্যাটিং করেছেন। তিন ম্যাচে এক সেঞ্চুরি ও দুই হাফসেঞ্চুরিতে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ম্যাচ জিততে সাকিবের ব্যাটও হাসতে হবে।

প্রতিপক্ষের শিবিরে চোটের কারণে বাংলাদেশের জন্য সুখবরের আভাষ মিলেছে। উইন্ডিজ অলরাউন্ডার রাসেলকে নিয়ে ভয় ছিল কোর্টনি ওয়ালশ, স্টিভ রোডস থেকে শুরু করে তামিম-মাশরাফিদের মনে। এই ম্যাচে শঙ্কায় রাসেল। তিনি ছাড়াও ব্যাটসম্যান এভিন লুইসও চোটে পড়েছেন। তাদের ব্যাপারে ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার বলেছেন, ‘আমরা তাদের ব্যাপারে ম্যাচের দিন সকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করবো। দেখা যাক কী হয়!’

পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশের মতো একই অবস্থা ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ৪ খেলায় একটি জয়, দুটি হার ও এক ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় ৩ পয়েন্ট তাদের। তবে রান রেটে এগিয়ে থাকায় টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে তারা।

সব মিলিয়ে দুই দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচটি। টন্টনের ছোট মাঠে শেষ হাসি কারা হাসে সেটাই এখন দেখার বিষয়। অন্য শহরের চেয়ে এই ভেন্যুতে বিশ্বকাপ নিয়ে উন্মাদনা খানিকটা বেশিই। তবে টন্টনে বাংলাদেশিদের বসবাস কম থাকায় মাশরাফিদের ম্যাচ নিয়ে আলোচনাটা কমই। যদিও আশপাশের শহর থেকে অনেক প্রবাসী বাংলাদেশি ম্যাচ দেখতে সোমবার সকালে টন্টনে আসবেন। ক্যারিবিয়ানদের বধ করে ২২ গজে গর্জন করার অপেক্ষায় বাংলাদেশি সমর্থকরা!

/আরআই/এফএইচএম/

লাইভ

টপ