শুধু একটি বড় ইনিংস প্রয়োজন: তামিম

Send
রবিউল ইসলাম, নটিংহাম থেকে
প্রকাশিত : ০১:৫২, জুন ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৪, জুন ২১, ২০১৯


Tamim-Iqbal-1

বিশ্বকাপের আগে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু বিশ্বকাপের মঞ্চে এসে তামিম আছেন নিজের ছায়া হয়ে। ওপেনার হিসেবে তামিমের স্ট্রাইকরেট ততোটা আহামরি গোছের কিছু নয়। তাইতো চাপটা বাড়ছে নিচের দিকে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটিতেও তামিমের স্লো রান নেওয়ার কারণে নিচে চাপ পড়েছে বেশি! যদিও তামিম মনে করেন, তিনি ভালো অবস্থানেই আছেন। একটি বড় ইনিংস পেলেই দৃশ্যপটটা পরিবর্তন হয়ে যাবে।

বিশ্বকাপের ৫ ম্যাচে ৩৩.৮০ গড়ে তামিম রান করেছেন ১৬৯। সর্বোচ্চ ৬২, আর তা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আজকেই পেলেন। তবে বড় ইনিংস না হওয়ার পেছনে ভাগ্যকে দুষলেন তিনি। বৃহস্পতিবার ৬২ রানে মিচেল স্টার্কের বলটি লেটকাট করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু ব্যাটে বলে না হয়ে ক্লিন বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন অভিজ্ঞ ওপেনার।  বৃহস্পতিবার ম্যাচ শেষে মিক্সড জোনে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তামিম বললেন, ‘হয়তো বা আমার মতো হচ্ছে না। টুর্নামেন্টের শুরুতে একটু সমস্যা হচ্ছিল। শেষ দুই ইনিংসে ভাগ্যটা সহায় হয়নি। ভাগ্যটা সহায় হলেই ইনিংসগুলো বড় হতে পারতো। আজকেও দেখেন! সাধারণতো এই শটটা আমি ভালো খেলি। কিন্তু আজ আমার দিন ছিল না। আমার কাছে মনে হয় আমি ভালো অবস্থায় আছি, শুধু একটি বড় ইনিংসের প্রয়োজন। সমস্যা হচ্ছে আমার হাতে সেই সময়টা নেই।’

৩৮২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে বাংলাদেশের কী পরিকল্পনা ছিল? এর ব্যাখ্যায় তামিম বললেন, ‘সত্যি কথা আমাদের বড় স্কোর চেজ করার অভিজ্ঞতা খুব বেশি নেই।  আমি স্কোরবোর্ডের দিকেই তাকাচ্ছিলাম না।  প্রাথমিক পরিকল্পনা ছিল ৩০ ওভারে ১৮০ কিংবা ২০০ করতে পারলে শেষ ২০ ওভারে একটা সুযোগ নেওয়া যাবে।  কারণ আগেই বেশি আক্রমণাত্মক খেলতে গিয়ে খেলাটা নষ্ট করলে ৩৩০ প্লাস রান হতো না। আমার চেষ্টা ছিল, ৩০ ওভারে ওই রান করা। বাকি রানটা টি-টোয়েন্টি মেজাজে খেলে করার চেষ্টা করা। আমি এবং মুশফিক সুযোগটা যখন কাজে লাগাতে পারতাম, তখনই আউট হয়েছি।’

বাংলাদেশ দলের এমন ব্যাটিং উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা খুবই কম। দেশের ভেতর স্পিন উইকেটে খেলে অভ্যস্ত মাশরাফিরা। দেশেও ট্রেন্টব্রিজের মতো ব্যাটিং উইকেট চান কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তামিম বলেছেন, ‘না চাইবো না। কারণ ওই সুবিধাটা আমি দেশের মাটিতে পাই। ওই সুবিধার কারণেও তো ম্যাচ জিতি।  ব্যাটসম্যান হিসেবে যদি বলতে হয় এরকম উইকেটে খেলতে হবে। আমাদের যে হোম অ্যাডভানটেজটা পাই হোম ক্রিকেটে সেটা কি কারণে ছাড়ব!’

/এফআইআর/

লাইভ

টপ