ফাইনাল নিয়ে নিরুত্তাপ লন্ডন

Send
রবিউল ইসলাম, লন্ডন থেকে
প্রকাশিত : ২১:১৫, জুলাই ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩১, জুলাই ১২, ২০১৯

ইংল্যান্ড ফাইনালে উঠলেও ব্রিটিশদের মধ্যে উত্তেজনা নেই২৭ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে ইংল্যান্ড। রবিবার ‘ক্রিকেটের মক্কা’ লর্ডসে তাদের প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড। অথচ ফাইনালের ৪৮ ঘণ্টা আগেও কোনও উত্তাপ নেই লন্ডনে। মরগান-রুটদের শিরোপা সম্ভাবনায় উদ্বেল নয় সাধারণ মানুষ। অনেকে তো জানেনই না যে ইংল্যান্ড ফাইনালে উঠেছে!

বৃটিশদের সবচেয়ে প্রিয় খেলা ফুটবল। রাগবি আর টেনিসও অনেকের পছন্দের তালিকায় আছে। উইম্বলডনের খোঁজ-খবর রাখছেন টেনিস ভক্তরা। কিন্তু ক্রিকেটের জন্মভূমিতে ক্রিকেটপ্রেমী খুঁজে পাওয়াই ভার।

ইংল্যান্ডে ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা সবচেয়ে বেশি দেখা যায় উপমহাদেশের মানুষের মধ্যে। বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার মানুষজন এতদিন মাতিয়ে রেখেছিল বিশ্বকাপ। কিন্তু প্রথম সেমিফাইনালে ভারত হেরে যাওয়ার পর বিশ্বকাপ নিয়ে উন্মাদনাও যেন শেষ।

হোয়াইটচ্যাপেল, কেনিংটন, স্ট্র্যাটফোর্ড, অল্ডগেট, স্টেপনি গ্রিন এলাকায় ফাইনাল নিয়ে তেমন আলোচনা নেই। স্ট্র্যাটফোর্ডের বিশাল শপিং মলে লোকজন কেনাকাটার ফাঁকে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলছে। কিন্তু তাদের কথাবার্তায় বিশ্বকাপ অনুপস্থিত! শহরের সিটি সেন্টার, ক্যাসিনো কিংবা কফি শপেও ফাইনাল নিয়ে আলোচনা নেই।

স্ট্র্যাটফোর্ডে কাজ করেন মার্থা অ্যান্টনি নামে এক কিশোরী। প্রতিবেদকের কাছে ইংল্যান্ডের ফাইনালে যাওয়ার কথা শুনেও তিনি নির্বিকার। মার্থা বললেন, ‘ক্রিকেট আমার পছন্দের খেলা নয়। ইনফ্যাক্ট আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষই ফুটবল পছন্দ করে। তুমি ফুটবল পছন্দ করো তো?’

সবাই অবশ্য মার্থার মতো নির্বিকার নয়। কেউ কেউ লর্ডসে বসে ফাইনাল দেখতে আগ্রহী। কিন্তু তাদের উৎসাহে জল ঢেলে দিচ্ছে টিকিটের আকাশছোঁয়া দাম। দুই হাজার পাউন্ডের নিচে কোনও টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না।

কোহলির দল ফাইনালে যাবে ধরে নিয়ে অনেক ভারতীয় টিকিট কিনে রেখেছিলেন আগেভাগে। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ফাইনালের ৪১ শতাংশ টিকিট ভারতীয়দের দখলে। তাই ইচ্ছে থাকলেও মরগানদের শিরোপা লড়াই দেখতে পারছেন না ব্রিটিশরা। ২৯৫ পাউন্ডের টিকিট কালোবাজারে বিক্রি হচ্ছে ১৬ হাজার পাউন্ডে! এ ব্যাপারে আইসিসিও যেন অসহায়। বিশ্বকাপ আয়োজক কমিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্টিভ এলওয়ার্দি বলেছেন, ‘কালোবাজারে যে দামে ফাইনালের টিকিট বিক্রি হচ্ছে সেটা সত্যিই হাতাশাজনক। এটা মেনে নেওয়া খুব কঠিন।’

নিয়ম অনুযায়ী, টিকিট কেনার পর একই দামে আইসিসির কাছে বিক্রি করা যাবে। কিন্তু নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অনেক বেশি দামে টিকিট বিক্রির চেষ্টা করছেন কেউ কেউ। অনেকেই টিকিট কিনতে না পেরে হতাশ। স্মিথ নামে এক ব্রিটিশ নাগরিক বললেন, ‘স্বপ্নেও ভাবিনি ইংল্যান্ড ফাইনালে যাবে। ২৭ বছর পর আমার দেশ ফাইনাল খেলবে। মাঠে গিয়ে দলকে সমর্থন করার ইচ্ছে থাকলেও পারছি না। আইসিসির কাছে কোনও টিকিট নেই। আর যাদের কাছে আছে, তারা এত দাম চাইছে যে কেনাই মুশকিল।’

/আরআই/এএআর/

লাইভ

টপ