আফগানিস্তানের ভেন্যু নিয়ে শঙ্কায় বাংলাদেশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:১৬, জুলাই ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:২২, জুলাই ১৮, ২০১৯

আফগানিস্তানের হোম ভেন্যু নিয়ে চিন্তিত বাংলাদেশ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে ‘ই’ গ্রুপে পড়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপ আয়োজক কাতারের সঙ্গে এই গ্রুপে আছে ওমান, ভারত ও আফগানিস্তান। বাংলাদেশের অভিযান শুরু হচ্ছে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর। অ্যাওয়ে ম্যাচে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের প্রথম প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। কিন্তু শুরুতেই অ্যাওয়ে ম্যাচের ভেন্যু নিয়ে শঙ্কায় বাফুফে।

সাধারণত যে দেশের খেলা, তাদের কোনও শহরে হয়ে থাকে ভেন্যু। সেক্ষেত্রে আফগানিস্তানের ভেন্যু তাদের কোনও শহরে হলে বাংলাদেশের জন্য তা শঙ্কার বিষয়। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির নিরাপত্তা প্রশ্ন সবার আগে সামনে আসে। এখনও প্রায়ই বুলেট-বোমায় কেঁপে ওঠে দেশটি। সেখানে গিয়ে জাতীয় দলের খেলা বাফুফেকে ভাবিয়ে তুলেছে।

যদিও আফগানিস্তানের হোম ভেন্যু কোথায় হবে, তা এখনও নির্ধারণ হয়নি। আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ফিফা ও এএফসিকে নিজ নিজ ভেন্যু জানাতে হবে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে।

অতীত রেকর্ড বলছে, রাশিয়া বিশ্বকাপ ও এএফসি এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে আফগানিস্তান হোম ম্যাচ নিজেদের দেশে খেলেনি। বিকল্প ভেন্যু হিসেবে খেলেছে ইরান ও তাজিকিস্তানের মাঠে। কিন্তু সবশেষ গত বছরের ১৮ আগস্ট ফিলিস্তিনের বিপক্ষে আবার প্রীতি ম্যাচ খেলেছে রাজধানী কাবুলে।

এই অবস্থায় বাফুফে বেশ চিন্তিত। সংস্থাটির সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগের মনে জন্মেছে শঙ্কার মেঘ। বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, ‘আমরা আফগানিস্তানের হোম ভেন্যু নিয়ে চিন্তিত। যদি ওরা হোম ভেন্যু কাবুলে নির্ধারণ করে থাকে, তাহলে আমাদের জন্য সেখানে গিয়ে খেলাটা কঠিন হবে। কেননা নিরাপত্তার ব্যাপারটি বড় হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ম্যাচে। তখন আমরা এই বিষয়ে আপত্তির কথা ফিফাকে জানাতে পারব।’

বাংলাদেশ দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে’ও চিন্তিত। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেছেন, ‘আমিও শুনেছি আফগানিস্তানে যাওয়াটা নিরাপদ নয়। ব্যক্তিগতভাবে সেখানে যেতে আমি ইচ্ছুক নই। ওখানে ম্যাচ না হওয়াটাই ভালো হবে। তবে সবকিছু নির্ভর করছে বাফুফের ওপর।’

/টিএ/কেআর/

লাইভ

টপ