সাইফকে উড়িয়ে দিলো আবাহনী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৪৩, জুলাই ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৩১, জুলাই ২১, ২০১৯

Abahani(Blue)  Vs  SAIF(Yellow) 7সাইফ স্পোর্টিংকে উড়িয়ে দিয়েছে আবাহনী। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে শনিবারের ম্যাচে ৪-১ গোলে জয়ে ফিরেছে চ্যাম্পিয়নরা। দুই দলই খেলেছে ১০ জন নিয়ে। দিনের অন্য দুই ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ২-০ গোলে চট্টগ্রাম আবাহনীকে আর রহমতগঞ্জ এমএফএসকে ৬-৩ গোলে হারিয়েছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সাইফ ও আবাহনীর লড়াই ছিল উত্তেজনায় ঠাসা। আগের ম্যাচে মোহামেডানের কাছে হারা আবাহনী পিছিয়ে ছিল প্রথমার্ধে। তাদের রক্ষণে দুইবার ব্যর্থ হওয়ার পর ৩৭ মিনিটে লক্ষ্যভেদ করে সাইফ। মিডফিল্ডার জাফর ইকবালের হেড থেকে কলম্বিয়ার দেইনার আন্দ্রেস কর্দোবা সাইড ভলিতে খোলেন গোলমুখ। বিরতিতে যাওয়ার আগে আরও একটি গোল খেতে বসেছিল আবাহনী। গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল পরপর দুটি শট ঠেকিয়ে তাদের বাঁচান।

দ্বিতীয়ার্ধে পাল্টে যায় ম্যাচের চিত্র। ঘুরে দাঁড়ায় আবাহনী। গোলরক্ষকের দোষে পাওয়া দুটি পেনাল্টি গোলে এগিয়ে যায় তারা। ৫০ মিনিটে নাবীব নেওয়াজ জীবনকে বক্সের মধ্যে ফেলে দেন সাইফুল ইসলাম। পেনাল্টি থেকে সানডে চিজোবার গোলে সমতা ফেরায় চ্যাম্পিয়নরা।

তিন মিনিট পর আবারও গোলরক্ষক সাইফুল আবাহনীকে গোলের সুযোগ করে দেন। বক্সের মধ্যে জুয়েল রানাকে ফেলে দেন তিনি। এই পেনাল্টির সিদ্ধান্তের পরপর দুই দলের খেলোয়াড়রা জড়িয়ে পড়েন হাতাহাতিতে। সরাসরি লাল কার্ড দেখেন আবাহনীর মাসিহ সাইগানি ও সাইফের ইমেরি বেয়িসেঙ্গে।

এই উত্তেজনা শেষে স্পট কিক থেকে গোল করে আবাহনীকে এগিয়ে দেন জীবন। সব অনিশ্চয়তা দূর করে ৬৫ মিনিটে তৃতীয় গোলের দেখা পায় তারা। বক্সে বল পেয়ে দুর্দান্ত ভলিতে ৩-১ করেন সানডে। ম্যাচ শেষ হওয়ার ১০ মিনিট আগে মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলামের কর্নার জালে জড়িয়ে গেলে দলে বড় জয় নিশ্চিত হয়।

ম্যাচ শেষ হতেই আরও বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে সাইফের খেলোয়াড়রা। শাস্তিও পান তাদের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া, রেফারি তাকে দেখান লাল কার্ড।

২২ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আবাহনী। এক ম্যাচ কম খেলে তাদের চেয়ে ৪ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শীর্ষে বসুন্ধরা কিংস (৫৮)। ২১ ম্যাচে ৪১ পয়েন্টে চতুর্থ সাইফ।

Sh Jamal  Vs  Ctg Abahaniঢাকার এই মাঠেই আগের ম্যাচে শেখ জামাল সহজ জয় পেয়েছে। প্রথমার্ধেই দুই গোল করে তারা। পঞ্চম মিনিটে গাম্বিয়ার ফরোয়ার্ড ইবো কান্তে খোলেন গোলমুখ। চট্টগ্রাম আবাহনীর জালে দ্বিতীয়বার বল জড়ায় ৩৭ মিনিটে। বক্সের বাইর থেকে জোরালো শটে জাল কাঁপান সলোমন কিং।

২২ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট ষষ্ঠ স্থানে থাকা শেখ জামালের। এক ম্যাচ কম খেলে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে চট্টগ্রাম আবাহনীর অবস্থান ঠিক তাদের পরে।

ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ গোল উৎসব করেছে। রহমতগঞ্জের বিপক্ষে জোড়া লক্ষ্যভেদে তাদের ছয় গোলের চারটিই করেছেন দুই ফরোয়ার্ড আরিফুর রহমান ও পল এমিল। এছাড়া শাহরিয়ার বাপ্পি ও চিনেদু ম্যাথিউ একটি করে গোল পান।

আরামবাগ ২২ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে। এক ম্যাচ কম খেলে রহমতগঞ্জ দশম, তাদের পয়েন্ট ১৯।

/টিএ/এফএইচএম/

লাইভ

টপ