‘মালিঙ্গার মতো ইয়র্কার কিং আর আসবে না’

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৩১, জুলাই ২৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩১, জুলাই ২৭, ২০১৯

শেষ ওয়ানডে খেললেন মালিঙ্গাবাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার প্রথম ওয়ানডে ছিল লাসিথ মালিঙ্গার বিদায়ী ম্যাচ। ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডে যতটা বর্ণিল হওয়ার দরকার, ঠিক ততটাই হলো। জিতলো লঙ্কানরা, আর এই সাফল্যে সামনে থেকে অবদান রাখলেন এই পেসার। ৯.৪ ওভারে ২৮ রান দিয়ে নিলেন ৩ উইকেট। মোস্তাফিজুর রহমানকে থিসারা পেরেরার ক্যাচ বানিয়ে নিশ্চিত করেছেন ৯১ রানের জয়। এরপর ‘ইয়র্কার কিংয়ের’ বিদায় সিক্ত হলো সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটারদের শ্রদ্ধা-ভালোবাসায়।

সাবেক অধিনায়ক ও সতীর্থরা প্রশংসায় ভাসিয়েছেন মালিঙ্গাকে, বিশ্ব ক্রিকেটেও হয়েছেন প্রশংসিত। ২০০৪ সালের ২৭ জুলাই আরব আমিরাতের বিপক্ষে অভিষেক হয়েছিল এই ডানহাতি পেসারের। বিশ্বকাপে রেকর্ড দুইবারের হ্যাটট্রিক বোলার এই ফরম্যাট ছাড়লেন ঠিক ১৫ বছর পর। ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ তিনটি হ্যাটট্রিকের মালিকও তিনি। সাবেক অধিনায়ক ও সতীর্থ মাহেলা জয়াবর্ধনে তার বিদায়বেলায় টুইট করেছেন, ‘২০০২ সালে গলেতে ১৮ বছরের একজন নেট বোলার হিসেবে মুখোমুখি হয়েছিলাম, সেই তুমি আজ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ ওয়ানডে খেলতে যাচ্ছ। তোমার কাছে তুমি ছিলে অন্য। একজন সতীর্থ, তবে সবকিছু ছাপিয়ে এজন ভালো বন্ধু- তুমি শ্রীলঙ্কাকে গর্বিত করেছ। প্রত্যেকটা মুহূর্ত উপভোগ করো মালি!!!’

ইনস্টাগ্রামে জয়াবর্ধনের পোস্টহেরাথের টুইটটেস্ট ও ওয়ানডেকে বিদায় জানালেও টি-টোয়েন্টি খেলবেন মালিঙ্গা। কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে তাকে শুভকামনা জানিয়ে সাবেক স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ লিখেছেন, ‘চমৎকার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের জন্য লাসিথ মালিঙ্গাকে অভিনন্দন। সে একা হাতে শ্রীলঙ্কাকে অনেক ম্যাচ জিতিয়েছে। ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির জন্য শুভকামনা রইলো।’

সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা লিখেছেন, ‘লাসিথ মালিঙ্গাকে অভিনন্দন। ক্রিকেট বিশ্ব ৫০ ওভারের ক্রিকেটে অবশ্যই তোমাকে মিস করবে। এগিয়ে যাও চ্যাম্পিয়ন।’ বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ থেকে বাদ পড়া দানুশকা গুনাথিলাকাও তাকে জানালেন শুভেচ্ছা, ‘কী দারুণ শেষ স্পেল! একজন লিজেন্ডারি খেলোয়াড়ের কিংবদন্তিতুল্য ক্যারিয়ার। একজন সত্যিকারের বিনয়ী এবং অনেকের জন্য অনুপ্রেরণা। একসঙ্গে খেলতে পেরে সৌভাগ্যবান মনে করছি নিজেকে। টি-টোয়েন্টির জন্য শুভকামনা।’

শচীনের পোস্টপ্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়রাও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন মালিঙ্গাকে। ভারতের ব্যাটিং গ্রেট ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সাবেক সতীর্থ শচীন টেন্ডুলকার লিখেছেন, ‘চমৎকার একটি ওয়ানডে ক্যারিয়ারের জন্য অভিনন্দন। ভবিষ্যতের জন্য শুভকামনা থাকলো।’ ভারতের আরেক সাবেক তারকা ক্রিকেটার যুবরাজ সিং ‘ইয়র্কার কিংয়ের’ উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘ইয়র্কার কিংয়ের বর্ণিল এই যাত্রার জন্য অভিনন্দন। তোমার মতো টো ক্রাশার আবার কখনও আসবে না। তোমার ভবিষ্যতের জন্য শুভকামনা থাকলো।’

যুবরাজ সিংয়ের পোস্টমালিঙ্গাকে সতীর্থ হিসেবে পেয়েছেন বাংলাদেশের পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। এই লঙ্কান পেসারের বিদায়ী ম্যাচে তিনি ছিলেন প্রতিপক্ষ। বিদায়ী বার্তায় মালিঙ্গার প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন কাটার মাস্টার, ‘আপনার সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগ করা ছিল সৌভাগ্যের। আমি জানি আপনি কতটা ভালো পরিকল্পনা করতে পারেন, অন্যকে উজ্জীবিত করতে পারেন এবং একই সঙ্গে কত ভালো মানুষ। সবচেয়ে বড় কথা আপনি একজন সেরা পারফর্মার। আপনার লড়াকু স্পিরিট সবার জন্য অনুপ্রেরণার। ওয়ানডে ক্রিকেট আপনাকে মিস করবে এবং আপনি সবসময় স্মরণীয় থাকবেন। বিদায় লিজেন্ড।’

মোস্তাফিজুর রহমানের পোস্টইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ১৭০ উইকেট নিয়ে সবার শীর্ষে মালিঙ্গা। আইপিএল চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সতীর্থ রোহিত শর্মা তাকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, ‘গত এক দশকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে অনেকের মধ্যে যদি একজনকে ম্যাচ উইনার হিসেবে আমাকে বেছে নিতে বলা হয়, তাহলে আমি নিশ্চিতভাবে তাকেই শীর্ষে রাখবো। অধিনায়ক থাকার সময় শ্বাসরুদ্ধকর মুহূর্তে আমাকে সে স্বস্তি দিয়েছে এবং কখনও ব্যর্থ হয়নি, দলে তার উপস্থিতি ছিল এমনই। ভবিষ্যতের জন্য শুভ কামনা রইলো এলএম।’

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ