দক্ষিণ আফ্রিকায় টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ মেয়েরা

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:২৫, আগস্ট ০৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৪৩, আগস্ট ০৫, ২০১৯

নাদিন ডি ক্লার্কের ব্যাটে সুপার ওভারে জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকাদক্ষিণ আফ্রিকায় মেয়েদের ইমার্জিং দলের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচটি দারুণ লড়াইয়ে টাই করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সুপার ওভারে হেরে গেলো তারা। তাতে ওয়ানডে সিরিজ ২-১ এ জিতলেও তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হলো নিগার সুলতানার দল।

রবিবার প্রিটোরিয়ার হাম্মান্সক্রাল মান্দেলা ওভালে টস জিতে স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশ। অধিনায়ক নাদিন ডি ক্লার্কের ইনিংস সেরা পারফরম্যান্সে এই সিরিজের সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর গড়ে প্রোটিয়ারা। ৩ উইকেটে ১৪৭ রান করে তারা। জবাবে ওপেনার সানজিদা ইসলামের হার না মানা ইনিংসে ৫ উইকেটে ১৪৭ রান করে বাংলাদেশ।

ম্যাচ টাই হলে সুপার ওভারে আগে বাংলাদেশ ব্যাট করে তোলে ১ উইকেটে ১০ রান। মাত্র ৩ বল খেলেই ডি ক্লার্কের এক ছয় ও দুটি চারে জয় নিশ্চিত করে স্বাগতিকরা। ম্যাচসেরা হন প্রোটিয়া অধিনায়ক।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে রিতু মনির বলে তৃষা ছেত্তি (১) দলীয় ৫ রানে বিদায় নেন। বোলিংয়ে বাংলাদেশের দারুণ শুরুটা বেশিক্ষণ টেকেনি। টাজমিন ব্রিটসের সঙ্গে ডি ক্লার্কের ৪৯ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় স্বাগতিকরা। ব্রিটস ৩৫ রানে বিদায় নিলে রবিন শার্লেকে নিয়ে দারুণ জুটি গড়েন অধিনায়ক। শার্লেকে (২০) ফিরিয়ে ৬৯ রানের জুটি ভাঙেন নাহিদা আক্তার। ডি ক্লার্ক ৫৩ বলে ৭ চার ও ৩ ছয়ে ৮৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।

জবাব দিতে নেমে ‍দুই ওপেনার মুর্শিদা খাতুন ও সানজিদার ৬৫ রানের জুটিতে দারুণ শুরু করে বাংলাদেশ। মুর্শিদাকে ২৬ রানে ফিরিয়ে দশম ওভারে এই জুটি ভাঙে প্রোটিয়ারা। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলেও সফরকারীরা লড়াই জমিয়ে তোলে সানজিদার ব্যাটে। শেষ ওভারে ৯ রান দরকার ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু টুমি সেখুখুনের প্রথম তিন বলে দুটি উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে তারা। শায়লা শারমিন শেষ তিন বলে ৬ রান নিয়ে ম্যাচ টাই করেন। ক্রিকইনফো

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ