লর্ডস টেস্ট থেকে সরে দাঁড়ালেন স্মিথ

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৪৯, আগস্ট ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৩, আগস্ট ১৮, ২০১৯

ঘাড়ে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়ছেন স্মিথঅ্যাশেজের দ্বিতীয় টেস্টে জোফরা আর্চারের বাউন্সারে ঘাড়ে আঘাত পাওয়ার পর কিছুক্ষণের জন্য মাঠের বাইরে যান স্টিভেন স্মিথ। প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সব ঠিক থাকায় আবার ব্যাট করেন এবং আউট হন ৯২ রানে। কিন্তু ওই আঘাতের প্রতিক্রিয়ায় রবিবার সকালে কিছু শারীরিক সমস্যা দেখা দেওয়ায় লর্ডস টেস্ট থেকে সরে দাঁড়ালেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান।

হেডিংলিতে বৃহস্পতিবার শুরু হতে যাওয়া তৃতীয় টেস্টেও অনিশ্চিত স্মিথের খেলা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর অজি ব্যাটসম্যানের মাথা ব্যথা ও ঝিমঝিম করছিল। তার আরও কিছু স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে।

৩০ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান সরে দাঁড়ানোয় অস্ট্রেলিয়াকে একজন কম নিয়ে যে খেলতে হবে তা নয়। গত ১৯ জুলাই আইসিসি নতুন নিয়ম করে, যেখানে বলা হয়- মাথায় আঘাত পাওয়া ক্রিকেটারের বদলি নামানো যাবে। এই নিয়মে প্রথম সুবিধা পেতে যাচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তারা এরই মধ্যে আইসিসির কাছে আবেদন করে স্মিথের বদলি হিসেবে মারনাস ল্যাবুশ্যাগনেকে দলে নিয়েছে।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এক বিবৃতিতে জানায়, ‘আগের রাতে মেডিক্যাল স্টাফরা স্টিভকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছিল। আজ সকালে জানা গেলো, ঘুমটা ভালো হলেও ওঠার পর থেকে একটু মাথা ব্যথার সঙ্গে ঝিমুনিও হচ্ছে।’ এরপর আরেকটি পরীক্ষায় স্মিথের মাথায় ওই আঘাতের প্রতিক্রিয়া ধরা পড়ে। সিএ আরও যোগ করেছে, ‘ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পরিসংখ্যানে দেখা গেছে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে দেরিতে এমন প্রতিক্রিয়ার হার ৩০ শতাংশ। তাই ইনজুরির দিন স্বাস্থ্য পরীক্ষায় রিপোর্ট ভালো থাকলেও ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা পরে খারাপ কোনও লক্ষণ দেখা যাওয়া অস্বাভাবিক নয়।’

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ