শাহজাদের নিষেধাজ্ঞার শাস্তি এক বছর

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৫৮, আগস্ট ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:১৭, আগস্ট ১৯, ২০১৯

 

সব ধরনের ক্রিকেটে এক বছর নিষিদ্ধ শাহজাদ।আফগানদের ওপেনিং ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শাহজাদকে নিয়ে অভিযোগ কম নয়। বার বার বিধি ভাঙার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। সম্প্রতি অনির্দিষ্টকালের জন্য তাকে নিষিদ্ধ করলেও এবার ঠিক হয়েছে সেই নিষেধাজ্ঞার স্থায়িত্ব। এক বছরের জন্য তাকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে আফগান ক্রিকেট বোর্ড।

বিধি ভাঙার অভিযোগটা বেশ পুরনো। বেশ কয়েকমাস ধরে বোর্ডের সঙ্গে সম্পর্কটাও খুব একটা ভালো যাচ্ছে না তার। বিশ্বকাপের মাঝপথে ফিটনেস ইস্যুতে দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয় শাহজাদকে। দেশে ফিরে ওপেনিং এই ব্যাটসম্যান আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় লক্ষ্যবস্তু বানান বোর্ডকে। বলেন, বোর্ড ইচ্ছে করেই নাকি দেশে পাঠিয়ে দিয়েছে তাকে। বোর্ড অবশ্য তেমন অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছে।

এর পরে বোর্ডের অনুমতি ছাড়া দেশ ছেড়েছেন। বোর্ডের নিয়ম অনুসারে দেশের বাইরে যেতে হলে বোর্ডের এনওসি লাগে ক্রিকেটারদের। শাহজাদ সেই নিয়মের তোয়াক্কা করেননি মোটেও। তাই কঠোর শাস্তির পথেব হাঁটার সিদ্ধান্ত নেয় বোর্ড। শুরুতে অনির্দিষ্ট কালের জন্য নিষিদ্ধ করলেও এবার তা দাঁড়িয়েছে এক বছরে।

ভেতরকার খবর বোর্ডের নির্ধারিত অনুশীলন সুবিধা না নিয়ে পাকিস্তানের পেশাওয়ারে অনুশীলন করতে দেখা গেছে তাকে। বোর্ড এর প্রতিক্রিয়ায় বলেছে, ‘এসিবির দেশের মধ্যেই অনুশীলন করার পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা রেখেছে। আফগান ক্রিকেটারদের বাইরে কোথাও এ জন্য ভ্রমণের প্রয়োজন নেই।’

শাহজাদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ নতুন নয়। যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তানের বেশির ভাগ ক্রিকেটারের জীবন কেটেছে পেশাওয়ারের উদ্বাস্তু ক্যাম্পে। শাহজাদ আফগান-পাক সীমান্তে বেড়ে উঠায় বিয়েটাও করেছেন সেখানে। আফগানিস্তানের বেশির ভাগ উদ্বাস্তু যারা এখানে ছিলেন, বিয়েও করেছেন সেখানে। তাই বেশির ভাগ অবস্থান করেনও পেশাওয়ারেই। শাহজাদও তেমনটাই করছেন। সেখানে তারা অস্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে নিবন্ধিত!-ক্রিকইনফো।

 

/এফআইআর/

লাইভ

টপ