চোটে বিদায় জোকোভিচের, শেষ আটে ফেদেরার-সেরেনা

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:৪৫, সেপ্টেম্বর ০২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৫৪, সেপ্টেম্বর ০২, ২০১৯

রিটায়ার্ড হয়ে বিদায় নিয়েছেন জোকোভিচ। এবারের ইউএস ওপেনে রজার ফেদেরার, রাফায়েল নাদালের মতো অন্যতম ফেভারিট ছিলেন নোভাক জোকোভিচ। প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় আলাদা চোখ ছিল তার ওপর। তিন ফেভারিটের এই টুর্নামেন্টে তার বিদায়টা হলো অপ্রত্যাশিতভাবে। কাঁধে চোটের কারণে রিটায়ার্ড হয়ে বিদায় নিয়েছেন শেষ ষোলোতে।

চতুর্থ রাউন্ডে তার প্রতিপক্ষ ছিলেন তিনটি গ্র্যান্ডস্লাম জয়ী ভাভরিঙ্কা। চোটের কারণে খেলা পুরোপুরি শেষ করতে না পারলেও হার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল জোকোভিচের। প্রথম দুই সেটে হেরেছেন ৬-৪, ৭-৫ গেমে। তৃতীয় সেটে ২-০ গেমে পিছিয়ে থাকা অবস্থাতে বিদায় নেন কোর্ট থেকে।

আচমকা বিদায় নেওয়ায় দর্শকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন সার্বিয়ান তারকা, ‘দর্শকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি। তারা পুরো ম্যাচ দেখতে এসেছিলেন। কিন্তু সেটা আর হয়নি।’

কোয়ার্টার ফাইনালে ভাভরিঙ্কার প্রতিপক্ষ পঞ্চম বাছাই দানিল মেদভেদেভ। জোকোভিচ না পারলেও প্রত্যাশা অনুযায়ী কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছেছেন আরেক ফেভারিট রজার ফেদেরার। শেষ ষোলোতে উড়িয়ে দিয়েছেন ১৫তম বাছাই ডেভিড গফিনকে। হারিয়েছেন ৬-২, ৬-২, ৬-০ গেমে। শেষ আটে তার প্রতিপক্ষ গ্রিগর দিমিত্রভ।

বাজেভাবে পড়ে গোড়ালিতে আঘাত পান সেরেনা। মেয়েদের এককে ২৪টি গ্র্যান্ড স্লামের রেকর্ডে ভাগ বসানোর মিশনে এগিয়ে চলেছেন সেরেনা উইলিয়ামস। চতুর্থ রাউন্ডে ৬-৩, ৬-৪ গেমে হারিয়েছেন পেত্রা মারতিচকে।

সেরেনা জয় তুলে নিলেও ভক্তদের ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন চোট আঘাত পেয়ে। শেষ সেটে বাজে ভাবে পড়ে আঘাত পেয়েছিলেন গোড়ালিতে। তখন মেডিক্যাল টাইম আউট প্রয়োজন পড়ে তার। ইনজুরি যে তার ওপর প্রভাব ফেলেছিল সেটা ম্যাচ শেষে জানান সেরেনা, ‘মানসিকভাবে চোটটা আমার ওপর প্রভাব ফেলেছিল। কারণ বছর খানেক এই ইনজুরিতে বাজে সময় গেছে আমার।’ শেষ আটে তার প্রতিপক্ষ চীনের ওয়াং কিয়াং।

/এফআইআর/

লাইভ

টপ