সুমনের পেসে ফতুল্লায় ঢাকার দাপট

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:১৮, অক্টোবর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:১৯, অক্টোবর ১২, ২০১৯

72199559_540211646736635_1883799821693747200_nজাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) ফিরে দ্বিতীয় দিন আলো ছড়ান রাজশাহীর মুশফিকুর রহিম। হাফসেঞ্চুরি করেন জহুরুল ইসলামও। কিন্তু সুমন খানের তোপে পড়ে ঢাকার বিপক্ষে লিড নিতে পারেনি গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। ফতুল্লায় তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের বড় লক্ষ্য দেওয়ার পথে ছুটছে ঢাকা।

প্রথম স্তরের এই ম্যাচে দ্বিতীয় ইনিংসে ঢাকা ৪ উইকেট হাতে রেখে ২৪৯ রানে এগিয়ে। প্রথম ইনিংসে তারা ২৪০ রান করার পর রাজশাহীকে ১৯৭ রানে অলআউট করে। ৪৩ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করতে ৫ উইকেট নিয়ে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখেন সুমন। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের তৃতীয় ম্যাচে এক ইনিংসে এই কীর্তি গড়লেন ডানহাতি পেসার।

৬ উইকেট ১৭৩ রানে দিনের খেলা শুরু করে রাজশাহী। আগের দিন ৩ উইকেট নেওয়া সুমন ১৬ রানে ফেরান ফরহাদ রেজাকে। ৫৭ রানে নামা জহুরুল বিদায় নেন সালাউদ্দিন শাকিলের বলে। ২২০ বলে রাজশাহী অধিনায়ক করেন ৬৪ রান। পরের ওভারে তাইজুল ইসলামকে (৫) ফিরিয়ে পঞ্চম উইকেট তুলে নেন সুমন। শফিউল ইসলামের (১০) শেষ উইকেট নেন সালাউদ্দিন।

সালাউদ্দিন তার সেরা বোলিং করেছেন ২৭ ওভারে ৫০ রান দিয়ে, ৯টি মেডেন ছিল। সালাউদ্দিন নেন ৩ উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংস খেলতে নেমে ৮৮ রানে ৩ উইকেট হারায় ঢাকা। এরপর রাকিবুল হাসান ও তাইবুর রহমানের হাফসেঞ্চুরিতে লিড বাড়াতে থাকে তারা। তাদের ৯৫ রানের জুটি ভাঙে রাকিবুল ৬৫ রানে ফরহাদের কাছে বোল্ড হলে। দিন শেষে তাইবুর ৬৭ রানে অপরাজিত ছিলেন।

রাজশাহীর পক্ষে তাইজুল তিনটি ও ফরহাদ দুটি উইকেট নেন।

প্রথম স্তরের আরেক খেলায় রংপুরের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে যায় ২২৭ রানে। ৫ উইকেটে ১৬৯ তারা দিন শুরু করেছিল। খুলনার অধিনায়ক আব্দুর রাজ্জাকের স্পিনে তারা সুবিধা করতে পারেনি। এই অফস্পিনার নেন ৪ উইকেট।

রংপুরের পক্ষে তানভীর হায়দার ৬৪ ও সোহরাওয়ার্দী শুভ ৫০ রান করেন আউট হন। খুলনার পক্ষে আল আমিন হোসেন ও রুবেল হোসেন নেন সমান দুটি করে উইকেট।

খুলনা প্রথম ইনিংস খেলতে নেমে দুই ওপেনারের হাফসেঞ্চুরিতে সুবিধাজনক স্থানে আছে। রবিউল ইসলাম রবি ৭৬ ও ইমরান উজ্জামানা ৭১ রানে আউট হন। ৩ উইকেটে ১৯২ রানে দিনের খেলা শেষ করেছে তারা।

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ