মেসির নৈপুণ্যে শীর্ষে বার্সেলোনা

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:১১, অক্টোবর ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১০, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

barca-cropped_v7kzfsxwpzjr1do2v8wu91kuyলিওনেল মেসির নৈপুণ্যে এইবারকে ৩-০ গোলে হারালো বার্সেলোনা। এই জয়ে অন্তত কয়েক ঘণ্টার জন্য রিয়াল মাদ্রিদকে সরিয়ে লা লিগার শীর্ষে বসলো চ্যাম্পিয়নরা।

৯ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে উঠে গেলো বার্সেলোনা। এক ম্যাচ কম খেলে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শনিবার মায়োর্কার মাঠে খেলবে রিয়াল।

লা লিগায় এইবারের বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি জয় পাওয়া দলের মর্যাদা এতদিন অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে ভাগাভাগি করছিল বার্সেলোনা। দশম জয়ে এবার মাদ্রিদ প্রতিপক্ষকে পেছনে ফেললো তারা। শীর্ষ লিগে সব মিলিয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা তারা বাড়িয়ে নিলো ৩৬-এ।

এইবারের মাঠে বার্সা একাদশে কয়েকটি বদল আনেন এর্নেস্তো ভালভারদে। লেফট ব্যাক হিসেবে জায়গা ফিরে পান ইনজুরিতে মাঠের বাইরে থাকা জোর্দি আলবা। ক্লেমন্ত লংলে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরেছিলেন। জেরার্দ পিকের জায়গা নেন স্যামুয়েল উমতিতি। আর্তুরো ভিদাল ও উসমান দেম্বেলের বদলে আসেন সের্হিয়ো বুশকেৎস ও আন্তোয়ান গ্রিয়েজমান।

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনা গোলকিপার মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেনকে কঠিন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি স্বাগতিক এইবার। অবশ্য পরিষ্কার সুযোগ তারা পেয়েছিল প্রথমে। ১২ মিনিটে পেদ্রো লিওনের প্রচেষ্টা ক্রসবারের ওপর দিয়ে চলে যায়।

পরের মিনিটে বার্সা এগিয়ে যায়। রক্ষণের ফাঁক গলে গ্রিয়েজমানকে বল দেন লংলে, প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় দে ব্লাসিস পিছলে পড়ে গেলে কোনও প্রতিরোধ ছাড়া গোলমুখের দিকে এগিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। এইবারের বিপক্ষে লিগে আগের ৯ ম্যাচে ১৫ গোল করা মেসি ৩১ মিনিটে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। স্বাগতিক গোলকিপার মার্কো দিমিত্রোভিচ তাকে প্রতিহত করেন। শট নেওয়ার আগে একটু বেশি সময় নেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড, সুযোগটা কাজে লাগিয়ে তাকে লক্ষ্যভ্রষ্ট করেন এইবার গোলরক্ষক।

বিরতির পর পঞ্চম মিনিটে ২-০ গোলে বার্সা এগিয়ে যেতে পারতো। কিন্তু লুই সুয়ারেসের গোলটি বাতিল হয় অফসাইডের কারণে। ৫৮ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে কাতালান জায়ান্টরা। সুয়ারেস বল বাড়িয়ে দেন গ্রিয়েজমানকে, বিশ্বকাপ জয়ী ফরোয়ার্ড নিজে লক্ষ্যে শট না নিয়ে মেসির কাছে ফ্লিক করেন। ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় নিচু কোনাকুনি শটে জালে বল জড়ান।

৬৬ মিনিটে ব্যবধান ৩-০ করে বার্সেলোনা। এইবারের রক্ষণের পেছনে বল বাড়ান গ্রিয়েজমান। মেসি বল নিয়ে চলে যান গোলমুখের সামনে। সামনে শুধু পান দিমিত্রোভিচকে, কিন্তু নিঃস্বার্থভাবে তিনি বল দিয়ে দেন সুয়ারেসকে, উরুগুয়ান স্ট্রাইকার সহজে খালি জালে বল জড়ান। খেলা শেষ হওয়ার ৫ মিনিট আগে মেসির বানিয়ে দেওয়া বলে লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি সুয়ারেস। তার শটে বল গোলবারের কয়েক ইঞ্চি পাশ দিয়ে চলে যায়।

/এফএইচএম/এমএমজে/

লাইভ

টপ