চট্টগ্রাম আবাহনীর দুর্দান্ত শুরু

Send
তানজীম আহমেদ, চট্টগ্রাম থেকে
প্রকাশিত : ২১:২৮, অক্টোবর ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৫১, অক্টোবর ২০, ২০১৯

গত আসরের চ্যাম্পিয়ন টিসি স্পোর্টসকে উড়িয়ে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক কাপে শুভ সূচনা করেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে স্বাগতিকরা মালদ্বীপের দলকে হারিয়েছে ৪-১ গোলে। গতবারের সেমিফাইনালিস্টদের হয়ে জোড়া গোল করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড চিনেদু ম্যাথিউ।

চট্টগ্রামে ‘এ’ গ্রুপের এই ম্যাচে শুরু থেকে আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছে চার বিদেশিকে নিয়ে একাদশ গড়া আবাহনী। একের পর এক আক্রমণে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের তটস্থ রাখে তারা। ম্যাচের ৪ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো মারুফুল হকের দল। কিন্তু আরিফুর রহমানের শট অল্পের জন্য ক্রসবারের ওপর দিয়ে যায়। এর চার মিনিট পরই প্রথম গোলের দেখা পায়। বাঁ দিক থেকে আরিফুরের কাট ব্যাক থেকে চিনেদু প্লেসিং শটে আবাহনীকে এগিয়ে দেন।

গ্যালারিতে আসা কয়েক হাজার দর্শকের উচ্ছ্বাস থামতে না থামতেই আরেকটি গোল। ১ কোটি ৬০ লাখ টাকার রিলিজ ক্লজে ঘরোয়া ফুটবলে হইচই ফেলে দেওয়া ইয়াছিন আরাফাত দ্বিগুণ করেন ব্যবধান। অষ্টম মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে তার বাঁকানো শটে বল ভেসে টিসি গোলকিপারকে অসহায় বানিয়ে জালে জড়ায়। 

মন্টেনিগ্রোর রোতকোভিচ লুকার হেড সাইড বারে না লাগলে ৩৭ মিনিটে ব্যবধান হতে পারতো ৩-০। অবশ্য বিরতির আগেই তৃতীয় গোলের দেখা পায় চট্টগ্রামের দলটি। ৪০ মিনিটে সোহেল রানার কাটব্যাক থেকে লক্ষ্যভেদ করেন ম্যাথিউ।

বিরতির পর টিসি গোছালো ফুটবল খেলতে থাকে। ৪৭ মিনিটে তাদের মিডফিল্ডার আদম ইসামের শট রুখে দেন গোলকিপার মোহাম্মদ নেহাল। আবাহনী আরও ব্যবধান বাড়ায় ৭৫ মিনিটে। ডান প্রান্ত থেকে আরিফুরের ক্রস ঠিকমতো গ্রিপে নিতে পারেননি গোলকিপার ইব্রাহিম নাদিম। বল তার থেকে ফসকে গেলে রোতকোভিচ ঠেলে দেন জালে।

চট্টগ্রাম আবাহনী গোলপোস্ট শেষ পর্যন্ত অক্ষত রাখতে পারেনি। ৮৭ মিনিটে  মোহাম্মদ সামিরের ক্রসে ইসমাইল ঈসার হেড লক্ষ্যভেদ হয়, তাতে সান্ত্বনার গোল নিয়ে মাঠ ছাড়ে গত আসরের চ্যাম্পিয়নরা।

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ