মালান-মরগান ঝড়ে সিরিজে ইংল্যান্ডের সমতা

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৩২, নভেম্বর ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৩৩, নভেম্বর ০৮, ২০১৯

সেঞ্চুরির পর মালানকে অভিনন্দন জানান মরগানএউইন মরগান ও ডেভিড মালানের ব্যাটিং ঝড়ের পর ২৪২ রানের লক্ষ্যে নেমে ম্যাট পার্কিনসনের লেগস্পিনে অসহায় নিউজিল্যান্ড। নেপিয়ারে চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিকদের ৭৬ রানে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে সমতা ফেরালো ইংল্যান্ড।

ম্যাকলিন পার্কে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মালান ও মরগানের দ্রুততম সেঞ্চুরি ও হাফসেঞ্চুরিতে ৩ উইকেটে রেকর্ড ২৪১ রান করে ইংল্যান্ড। এরপর তারা নিউজিল্যান্ডকে ১৬.৫ ওভারে ১৬৫ রানে গুটিয়ে দেয়। সিরিজ নির্ধারণী পঞ্চম ও শেষ ম্যাচে রবিবার অকল্যান্ডে মুখোমুখি হবে দুই দল। চার ম্যাচ শেষে সিরিজ ২-২ এ সমতায়।

৫৮ রানে ২ উইকেট হারানোর পর জুটি গড়েন মরগান ও মালান। ২১ বলে ৫ চার ও ৩ ছয়ে পঞ্চাশ ছোঁন মরগান। উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জস বাটলারকে পেছনে ফেলে গড়েন দেশের দ্রুততম হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড। ২০১৮ সালে বার্মিংহামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২২ বলে ফিফটি করেন বাটলার।

এর আগে ৩১ বলে ছয় চার ও এক ছয়ে ফিফটি ছোঁন মালান, হাফসেঞ্চুরির পর আরও মারকুটে হয়ে ওঠেন তিনি। বাকি পঞ্চাশ পার করতে তিনি খেলেন আর মাত্র ১৭ বল। ৪৮ বলে ৯ চার ও ৬ ছয়ে ইংল্যান্ডের দ্রুততম সেঞ্চুরি করেন মালান। অ্যালেক্স হেলসের পর দ্বিতীয় ইংলিশ ব্যাটসম্যান হিসেবে কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে শতক করেছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ম্যাচ শেষে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার উঠেছে তার হাতে।

বল হাতে নিউজিল্যান্ডকে ধসিয়ে দেন পার্কিনসনইনিংস শেষ হওয়ার দুই বল আগে মরগানকে ফেরান টিম সাউদি। ৭টি করে চার ও ছয়ে ৪১ বলে ৯১ রান করেন সফরকারী অধিনায়ক। তৃতীয় উইকেটে মালানের সঙ্গে তার ছিল ১৮২ রানের জুটি, যেটা ইংল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ। ৫১ বলে ৯ চার ও ৬ ছয়ে ১০৩ রানে অপরাজিত ছিলেন মালান।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে মিচেল স্যান্টনার দুই উইকেট নিয়ে সেরা বোলার।

বিশাল লক্ষ্যে নেমে শুরু থেকে আগ্রাসী খেলার বিকল্প ছিল না কিউইদের সামনে। কলিন মুনরোর (৩০) সঙ্গে ৪.৩ ওভারে ৫৪ রানের দুর্দান্ত জুটি গড়ে বিদায় নেন মার্টিন গাপটিল (২৭)। এরপর পার্কিনসনের স্পিনে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে স্বাগতিকরা।

৮৯ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর স্যান্টনারকে নিয়ে শেষ প্রতিরোধ গড়েন সাউদি। অধিনায়কের ১৫ বলে ২ চার ও ৪ ছয়ে সাজানো ৩৯ রানের ঝড় থামে পার্কিনসনের শিকার হয়ে। ইংলিশ স্পিনার ৪ ওভারে ৪৭ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। দুটি পান ক্রিস জর্ডান।

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ