খুলনায় মাঠের বাইরে বড় স্ক্রিন স্থাপনের দাবি

Send
খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:১১, জানুয়ারি ১৫, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২৩, জানুয়ারি ১৫, ২০১৬

খুলনা শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ে বনাম বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের টিকিট পেয়ে উচ্ছ্বসিত ছিলেন গ্যালারিতে থাকা দর্শকরা। ছিলেন উজ্জীবিত। কিন্তু টিকিট না পাওয়া দর্শকরা একরাশ হতাশা নিয়ে ছিলেন মাঠের গেটের সামনে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য মাঠের সামনের ফাঁকা স্থানে বড় ডিজিটাল স্ক্রিন স্থাপন করার দাবি জানিয়েছেন বঞ্চিত এই দর্শকরা।
গ্যালারিতে বসে খেলা দেখতে না পেরে হতাশা প্রকাশ করেছেন মাঠের প্রধান গেটের অদূরে থাকা আব্দুর রহমান। তিনি বলেন, ‘ব্যাংকের সামনে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে দাঁড়িয়ে থেকেও টিকিট পাইনি। দুপুরের পর থেকে টিকিট শেষ হওয়ার কথা বলে টিকিট দেওয়া বন্ধ করে দেয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। ফলে খেলা শুরুর আগে মাঠের গেটের সামনে দাঁড়িয়ে থেকে খেলার আস্বাদন নেওয়ার চেষ্টা করছি। এখানে বড় একটি ডিজিটাল স্ক্রিন থাকলে সরাসরি খেলা দেখা আর গ্যালারির দর্শকদের উচ্ছ্বাসের সঙ্গে আনন্দ উপভোগ করা যেত। যা ঘরে বসে টিভিতে খেলা দেখে পাওয়া অসম্ভব।’

গ্যালারিতে থাকা খালিশপুরের আহমদ খান বলেন, ‘অনেক কষ্টে একটি টিকিট পেয়েছিলাম। এর ফলে মাঠে বসেই স্বল্প ওভারের মজাদার খেলা উপভোগ করা সম্ভব হচ্ছে।’

বিএল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ছাত্রী সোহানা আক্তার বলেন, ‘এবার কষ্ট করে টিকিট পেয়ে মাঠে বসে খেলা দেখতে পেরে ভিশন আনন্দিত। এত খুশি ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন।’

ইউসিবির খুলনার খানজাহান আলী রোড শাখার প্রধান মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘শুক্রবারের প্রথম ম্যাচের জন্য ব্যাংক থেকে ৩ হাজার টিকিট বিক্রি করা হয়েছে। এরপর হাতে আর টিকিট না থাকায় টিকিট বিক্রি বন্ধ করা হয়।’

বিসিবিরি পরিচালক খুলনা বিভাগীয় প্রতিনিধি শেখ সোহেল বলেন, ‘দর্শকদের প্রত্যাশা অনেক বেশি। কিন্তু এই মাঠে দশ হাজার ধারণ ক্ষমতা রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই মাঠের ধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধি করার জন্য পদক্ষেপ নেওয়ার চেষ্টা করা হবে।’

/এফআইআর/

লাইভ

টপ