behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

বাংলাদেশের ‘অনেক প্রতিশোধের’ ম্যাচ

রবিউল ইসলাম, বেঙ্গালুরু থেকে২৩:৪৭, মার্চ ২০, ২০১৬

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের কারণে নিষিদ্ধ হয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান দুই অস্ত্র পেসার তাসকিন আহমেদ ও বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানি। এই অবস্থার ড্রেসিং রুমের পরিবেশ কেমন হতে পারে তা সহজেই অনুমেয়। তার ওপর মূল পর্বের শুরুটা হার দিয়ে হয়েছে বাংলাদেশের। ফলে টুর্নামেন্টে ঘুরে দাঁড়াতে হলে আগামীকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিততেই হবে টাইগারদের।
এমন দুঃসময়ের মধ্যেও চাইলে অনেক অনুপ্রেরণা খুঁজে নিতে পারেন মাশরাফি-সাকিবরা। তাসকিনকে নিষিদ্ধ করায় আইসিসির বিপক্ষে ষড়যন্ত্রের গন্ধ খুঁজে পাচ্ছেন অনেকে। মাশরাফি সরাসরি তা না বললেও,আকারে ইঙ্গিতে বলে দিলেন তাসকিনের সঙ্গে অবিচারই হয়েছে। অসিদের সঙ্গে ম্যাচে চাইলে বলে-ব্যাটে জবাবটা দিতেই পারেন টাইগাররা।
তারওপর অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গেও অনেক ‘হিসাব-নিকাশ’ আছে বাংলাদেশের। আসলে মাঠের বাইরে গত কয়েক মাসে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত হতে হয়েছে বাংলাদেশকে কিংবা বলা যায় বাংলাদেশের ক্রিকেট কূটনীতিকে। গত নভেম্বরে বাংলাদেশের মাটিতে দুটি টেস্ট খেলার কথা ছিল অসিদের। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাতে তারা বাংলাদেশে আসেনি।

শুধু তাই নয়, অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপেও অস্ট্রেলিয়ান বোর্ড তাদের যুব দলকেও পাঠায়নি বাংলাদেশে। অথচ বিপিএলের পর জিম্বাবুয়ে সিরিজ,আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ এবং এশিয়া কাপ সফলভাবে আয়োজন করেছে বিসিবি। সেখানে নিরাপত্তায় কোনও বিঘ্ন ঘটেনি। অথচ অস্ট্রেলিয়াই একমাত্র দল তারা নিরাপত্তার অভাব অনুভব করেছিল! টাইগারভক্তদের অভিযোগ ছিল অস্ট্রেলিয়া ওই সময়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলতে অস্বীকৃতি জানানোর মূল কারণ নিরাপত্তা ইস্যু ছিলো না। তারা বাংলাদেশের বিপক্ষে হেরে যাওয়ার ভয়েই মূলত খেলেনি!

সবকিছু ছাপিয়ে তাই মাশরাফিরা চাইলে এই ‘প্রতিশোধ’টা নিয়ে নিতে পারেন। অস্ট্রেলিয়াকে বুঝিয়ে দিতে পারেন, বাংলাদেশ আগের অবস্থানে নেই! সেই সঙ্গে আইসিসির বিরুদ্ধে বাংলাদেশকে দমিয়ে রাখার যে ক্ষোভ বাংলাদেশ ক্রিকেট সমর্থকদের, অসিদের হারালে তা প্রশমনের সুযোগও থাকছে। সব মিলিয়ে এটা তাই বাংলাদেশের অনেক ‘প্রতিশোধের’ ম্যাচ!

/এমআর/এনএস/এপিএইচ/

ULAB
Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

IPDC  ad on bangla Tribune
টপ